নুরুল কবির, বান্দরবান:

মিয়ানমার থেকে অনুপ্রবেশকারী নতুন ও পুরাতন রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে ভোটার তালিকাভুক্ত হওয়া ঠেকাতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের আরো কঠোর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বান্দরবানের জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক।

সোমবার সকালে বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে আয়োজিত রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকা অন্তর্ভুক্তি রোধকল্পে করণীয় শীর্ষক এক কর্মশালায় তিনি এই নির্দেশনা দেন।

এছাড়া রোহিঙ্গাদের ভোটার হওয়া ঠেকাতে কক্সবাজার বান্দরবানসহ দেশের রোহিঙ্গা অধ্যুষিত ৪টি জেলার ৩২টি উপজেলায় নির্বাচন কমিশনের বিশেষ কমিটি কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

নির্বাচন কমিশনের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন এই কর্মশালার আয়োজন করে। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দিদারে আলম চৌধুরী মাকসুদ,ভারপ্রাপ্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শাহাদাৎ হোসেন সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবদুল কুদ্দুছসহ সাতউপজেলার ইউপি চেয়ারম্যানগন ।

সভায় জনপ্রতিনিধিরা জানান, রোহিঙ্গারা সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে নানা উপায়ে ভোটার তালিকাভুক্ত হয়ে যাচ্ছে। পরে তারা বিদেশেও পাড়ি জমাচ্ছেন।

নাইক্ষ্যংছড়ি ঘুনধুম ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আজিজ জানান, পুরাতন রোহিঙ্গাদের মাধ্যমে নতুনরা তালিকাভুক্ত হচ্ছে। অনেকে চট্টগ্রাম, সিলেট, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গিয়ে ভোটার হচ্ছেন। পরে তারা সেই তালিকা কক্সবাজার, বান্দরবানে স্থানান্তর করে নিয়ে আসছে। পুরাতন রোহিঙ্গাদের কীভাবে ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেয়া যায় তার উপায় বের করতে হবে। প্রয়োজনে বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া দরকার।

লামার গজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বাথোইচিং মারমা জানান, টাকার বিনিময়ে নতুন রোহিঙ্গারা জন প্রতিনিধিদের সহায়তায় ভোটার তালিকাভুক্ত হয়ে যাচ্ছে। এসব বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের যাচাই-বাছাই আরো কঠোর করতে হবে

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •