বড় মহেশখালী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে আহসান উল্লাহ

বিশেষ প্রতিবেদক:

বড় মহেশখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সম্মেলন ও কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে পুরো উপজেলা জুড়ে চাঙ্গাভাব সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নেতাকর্মীদের মাঝে নানা উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। সম্প্রতি অনেকেই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে মাঠে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি অনেকেই নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও প্রচারণা চালাচ্ছে। তবে আগামী ২৬ অক্টোবর বড় মহেশখালী ইউনিয়ন যুবলীগের প্রার্থী হিসেবে সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা ঘোষণা দিয়েছেন তাদের মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী আহসান উল্লাহ আহসান। তার প্রার্থীতা নিয়ে ফেইসবুক স্ট্যাটাসে শত শত আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সমর্থন লক্ষ্য করা গেছে।

এদিকে মহেশখালী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক আবদুল মান্নান বলেন, উপজেলার সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন হিসেবে বড় মহেশখালী অন্যতম। তাই এই ইউনিয়নের নেতৃত্বে যারা আসবে তাদের পারিবারিক, সামাজিক ও শিক্ষার বিষয় বিবেচনা করে নেতা নির্বাচন করতে হবে। আর সেই ক্ষেত্রে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আহসানকে সবার চেয়ে যোগ্য মনে করি আমি। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, ত্যাগি ও পরিশ্রমী এবং জনপ্রিয় সাবেক ছাত্রনেতা হিসেবে আহসান যদি ইউনিয়ন যুবলীগের দায়িত্বে আসে তাহলে দল ও নেতাকর্মীদের ভাবমূর্তি আরো উজ্জ্বল হবে।

বড় মহেশখালীর সাবেক ছাত্রনেতা মাহামুদুল করিম বলেন, বড় মহেশখালী হচ্ছে মহেশখালী উপজেলার একটি গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন। এই ইউনিয়নে সভাপতি-সম্পাদক পদে ন¤্র, ভদ্র ও সকলের গ্রহণযোগ্য যুবক দরকার। তাই ইতিমধ্যে যারা সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাই তাদের মধ্যে সাবেক ছাত্রনেতা বর্তমান উপজেলা যুবলীগ নেতা আহসান অন্যতম। তিনি আরো বলেন, আমি আহসানের সাংগঠনিক কর্মকান্ড যতটুকু দেখেছি সে আসলেই একজন দক্ষ সংগঠক।

উপজেলা যুবলীগের সদস্য জমির উদ্দিন বলেন, ত্যাগী নেতা হিসেবে বড় মহেশখালীর সাধারণ সম্পাদক পদে যুবলীগ নেতা আহসানের বিকল্প নেই। এদিকে বড় মহেশখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হিসেবে নিজের অবস্থান সম্পর্কে জানতে চাইলে আহসান বলেন, আমি বড় মহেশখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য ছিলাম। বর্তমানে উপজেলা যুবলীগের সদস্য। তার চেয়ে আমার বড় পরিচয় আমি বঙ্গবন্ধুর আর্দশের একজন সৈনিক। এই দেশের ১৬ কোটি মানুষের আস্থা ও বিশ^াসের ঠিকানা জননেত্রী শেখ হাসিনার রাজনীতির প্রতীক। তাই একটা কথাই বলল, বর্তমান মহেশখালী-কুতুবদিয়ার সংসদ সদস্য দুই দ্বীপবাসির আস্থা ও বিশ^াসের ঠিকানা জননেতা আশেক উল্লাহ রফিক ভাইকে আগামী সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করার জন্য এবং দলকে আরো শক্তিশালী করার জন্য আমি ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছি।

আহসান আরো বলেন, মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের আমার প্রিয় অভিভাবক উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক প্রিয়নেতা সাজেদুল করিম ভাই ও যুগ্ন-আহবায়ক যথাক্রমে শেখ কামাল ভাই ও সেলিম ভাই এর অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে মহেশখালী যুবলীগ আজ এই পর্যায়ে এসেছে। সুতারাং আমি মনে করি উল্লেখিত প্রিয় নেতাদের সিদ্ধান্ত কখনো ভুল হবেনা।

সর্বশেষ সংবাদ

হিজড়াদের ৮ বিভাগে ৮টি সংরক্ষিত আসন দাবী

৩০ নভেম্বরের মধ্যে বিনা জরিমানায় আয়কর রিটার্ন জমা দেয়া যাবে

চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে পুনরায় মাল্টি চ্যানেল স্লিপওয়ে নির্মাণ শুরু

স্কুল,কলেজ ফাঁকি দিয়ে শিক্ষার্থীরা কি করে দেখার আহবান মেয়র নাছিরের

পল্টন থানার তিন মামলায় মির্জা আব্বাস ও আফরোজা আব্বাসের আগাম জামিন

মহেশখালীতে বন্দুক ও কাতুর্জসহ মানবপাচার মামলার আসামী গ্রেফতার

চকরিয়া থানার আধুনিক দৃষ্টি নন্দন ভবন উদ্বোধন করলেন আইজিপি

অধ্যক্ষ আবদুল হক একটানা তিনবার সেরা প্রতিষ্ঠান প্রধান হলেন

প্রাথমিকে ‘কমন প্রশ্নে’ সহজ পরীক্ষা

আবদুর রহমান বদি কি নির্বাচন করতে পারবেন ?

পুলিশের আইজি এখন কক্সবাজারে

খরুলিয়ায় পিক-আপ সিএনজি ও বাসের ত্রিমুখী সংঘর্ষ

টেকনাফে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত

দেশে ১৬৬৬ জন মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত কয়েদীর ফাঁসি হাইকোর্টে অনুমোদনের অপেক্ষায়

বিএনপি’র মনোনয়ন প্রার্থীদের সাক্ষাতকার আজ রোববার থেকে শুরু

দুবাইয়ে সেরা গীতিকারের সম্মাননা পেলেন নাটোরের মেয়ে সোহানী

আজ চকরিয়া আসছে আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী

পেকুয়ায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন!

তাহলে কী জাফর-আশেক-কানিজ-বদি পাচ্ছেন নৌকার টিকেট!

ইসলামাবাদে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় যুবক নিহত