বিদেশ ডেস্ক:
সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুতে পৃথক দুটি গাড়িবোমা বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৫ জনে। শনিবারের এই হামলায় আরও শতাধিক মানুষ আহত হয়েছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

২০০৭ সালে সোমালিয়ায় ইসলামপন্থীদের সশস্ত্র বিদ্রোহ শুরু হওয়ার পর সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার একটি। দেশটির প্রেসিডেন্ট মোহামেদ আব্দুল্লাহি ফারমাজো নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তিন দিনের জাতীয় শোক ঘোষণা করেছেন। একই সঙ্গে তিনি আহতদের জন্য রক্ত ও অর্থ সংগ্রহেরও আহ্বান জানিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার শহরের কে-৫ মোড়ে একটি হোটেলের সামনে একটি ট্রাক বোমা বিস্ফোরিত হয়। এতে সরকারি অফিস, রেস্তোরাঁসহ বেশ কয়েকটি ভবন বিধ্বস্ত হয়েছে এবং কয়েকটি গাড়িতে আগুন লাগে। এই বোমা বিস্ফোরণের দুই ঘণ্টা পর মদিনা জেলায় আরেকটি বিস্ফোরণ ঘটে।

পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ হোসেইন জানান, নিহতদের সংখ্যা ৮৫ জনে দাঁড়িয়েছে। আমরা জানি আরও প্রায় ১০০ জন আহত হয়েছেন।

রবিবারও পুলিশ ও জরুরি সেবার কর্মীরা বিধ্বস্ত ভবনের ধ্বংসস্তূপে অনুসন্ধান চালাচ্ছে। শনিবার রাতে অনেক লাশ উদ্ধার করা হয়েছে যেগুলো শনাক্ত করার উপযোগী নয়। পুলিশ ঘটনাস্থল ঘিরে রেখেছে। স্বজনদের খোঁজে কয়েকশ মানুষ সেখানে জড়ো হয়েছেন।

তাৎক্ষণিকভাবে বিস্ফোরণের দায় কোনও জঙ্গি সংগঠন স্বীকার করেনি। তবে সোমালিয়ার বিভিন্ন স্থানে আল শাবাব গোষ্ঠী নিয়মিত বোমা হামলা চালিয়ে আসছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •