রোহিঙ্গারা বাঙালি : মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে জানাল মিয়ানমার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
‘রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের স্থানীয় অধিবাসী নয়। শরণার্থীদের পালিয়ে যাওয়ার সংখ্যা গণমাধ্যমগুলো অতিরঞ্জিতভাবে প্রচার করছে।’ রাখাইনের রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে এক বৈঠকে মিয়ানমারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে এসব তথ্য জানান দেশটির সেনাপ্রধান মিন অং হ্লেইং।

বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযাগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের পেইজে দেয়া এক পোস্টে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের তথ্য জানান তিনি।

বৈঠকে রাখাইনের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের নিয়ে আলোচনা হলেও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে অভিযোগ উঠেছে সেবিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি এই জেনারেল।

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমারের সবচেয়ে ক্ষমতাশালী হচ্ছেন সেনাপ্রধান হ্লেইং। রাখাইনে সেনাবাহিনীর অভিযান ঘিরে তার অনমনীয় অবস্থানের কারণে আন্তর্জাতিক নিন্দা ও নোবেল জয়ী সু চির নেতৃত্বে দেশটির গণতান্ত্রিক যাত্রা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

মিয়ানমারে সামরিক অভিযান এখনো জনপ্রিয়; দেশটিতে রোহিঙ্গাদের জন্য সহানুভূতি নেই বললেই চলে। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মিয়ানমারে বৌদ্ধ জাতীয়তাবাদীদের উত্থান ঘটেছে।

হ্লেইং রোহিঙ্গাদের ‘বাঙালি’ হিসেবে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকরা এই সমস্যার জন্য দায়ী। বুধবার ইয়াঙ্গুনের কনমিনথায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত স্কট অ্যালান মার্সিয়েলকে সেনাপ্রধান হ্লেইং বলেন, ‘দেশে বাঙালিদের নিয়ে আসেনি মিয়ানমার; কিন্তু ঔপনিবেশিকরা তাদেরকে মিয়ানমারে নিয়ে এসেছেন।’

‘তারা মিয়ানমারের স্থানীয় অধিবাসী নয় এবং তথ্য-উপাত্তে প্রমাণ আছে, এমনকি তাদেরকে রোহিঙ্গা বলেও ডাকা হয় না। কিন্তু ঔপনিবেশিক সময় থেকে তাদেরকে বাঙালি বলে ডাকা হয়।’

বুধবার জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক কার্যালয় বলছে, রোহিঙ্গাদের রাখাইন থেকে বিতাড়িত করতে নিষ্ঠুর পরিকল্পিত অভিযান পরিচালনা করছে। রোহিঙ্গারা যাতে ফিরতে না পারে সেলক্ষ্যে তাদের বাড়ি-ঘর, ফসল এবং গ্রামগুলো জ্বালিয়ে দেয়া হচ্ছে।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইনে পুলিশের ৩০টি তল্লাশি চৌকিতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার পর রোহিঙ্গাবিরোধী কঠোর অভিযান শুরু করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। অভিযানে এখন পর্যন্ত ৫ লাখ ২০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স।

সর্বশেষ সংবাদ

ছোট মহেশখালীতে আ. লীগ নেতা জাফর আলমের গনসংযোগ

শেষ ঠিকানায় কবি আল মাহমুদ

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে শাজাহান খানের নেতৃত্বে কমিটি

একুশের কবিতা-গান, নগ্ন-পা এবং শহীদ মিনার

পেকুয়ায় ব্রীজে ঝুঁকিপূর্ণ গর্ত

ঘটনা দেখানো হয়েছে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কে

লামায় ফাঁসিতে ঝুলে বৃদ্ধার মৃত্যু

সংরক্ষিত আসনে ৪৯ নারীকে নির্বাচিত ঘোষণা করল ইসি

ভ্যালেন্টাইনস ডের রাতে পোশাক কর্মীকে ‘দলবেঁধে ধর্ষণ’

ঈদগাঁওতে ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতির মৃত্যু : জানাজা সম্পন্ন

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠকে জাতীয়করণের দাবী

১১ সদস্যের বিএসএফ প্রতিনিধি দল এখন বাংলাদেশে

কক্সবাজারে অটোবাইক মালিক চালক ও শ্রমিকদের বিক্ষোভ

আবুধাবি IDEX-2019 এ যোগ দিতে যুদ্ধ জাহাজ ধলেশ্বরী এখন আমিরাতে

আমিরাতে পৌছেছেন প্রধানমন্ত্রী : উৎফুল্ল প্রবাসিরা

ক্ষমা চাইবে না জামায়াত, নতুন উদ্যোগ নিয়ে সংশয়

রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়ন হয়েছে, তবে সেনাবাহিনী জড়িত নয়: মিন হ্লায়াং

পেকুয়ায় ট্রাকের ধাক্কায় মটর সাইকেল চালক নিহত

বিকিনি পরা মডেলকে কামড়ালো শুকর, ভিডিও ভাইরাল

প্রাথমিকের পেনশন সুবিধা ১৫ দিনেই