রেফারীর বিতর্কিত সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ দর্শক ও কর্মকর্তা

সংবাদদাতা:
কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থা কতৃক আয়োজিত জেলা ফুটবল লীগে বিতর্কিত রেফারীর কারনে খেলা দেখতে আসা দর্শকরা হতাশ হয়েছে এছাড়া বিপুল টাকা খরচ করে ফুটবল ক্লাব চালানো কর্মকর্তারাও চরম ক্ষোবের বহিপ্রকাশ করেছে। এসময় মাঠে আসা অনেক সচেতন ফুটবল বুদ্ধারা রেফারীদের প্রশিক্ষন এবং তাদের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেন। ন্যাশনাল কক্সে ক্রীড়া সংঘের কর্মকর্তা মোঃ জাহেদ উল্লাহ অভিযোগ করেন, ১১ অক্টোবর স্টেডিয়াম মাঠে অনুষ্টিত সেমিফাইনাল খেলায় হাজার হাজার দর্শক স্বাক্ষি কিভাবে বাজে রেফারীর কারনে আমাদের দলের হার মানতে হয়েছে।
১৮ মিনিটে ডিবক্সের প্রায় ৩ ফুট ভিতরে দলীয় খেলোয়াড় সানডে কে অবৈধ ভাবে বাধা দিলে মধ্যমাঠের রেফারী মাহমুদ হাসান মামুন পেনাল্টির বাশি বাজিয়েছিল এবং উপস্থিত সবাই দেখেছে তিনি ইশারাও করেছে পেনাল্টির এবং তিনি পেনাল্টি মারার জন্য পরিবেশও তৈরি করছিলেন সেই মুহুর্তে সাইটরেফারী একটি দলের কর্মকর্তা শফির আপত্তির প্রেক্ষিতে রেফারীর সিদ্ধান্ত বদল করেছে। এটা কোন ভাবেই কাম্য নয়।
কারন আমাদের জানা মতে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নেবে রেফারী সেখানে লাইন্সম্যানের পরামর্শ নেওয়ার প্রয়োজন নেই। সেই গোল যদি আমরা পেতাম তাহলে আমাদের টিম ৩ গোলে এগিয়ে থাকতো। এবং জয় আমাদের হতো।
এছাড়া ৫০ মিনিটে আবারো সেই লাইন্সম্যান শফি বিতর্কিত ভাবে আমাদের বিপক্ষে থ্রুদিয়ে আমাদের খেলাকে নস্ট করেছে।আমার পাশ বসা শেখ জামাল ক্লাবের কর্মকর্তাও বলছে সেটা পেনাল্টি ছিল রেফারীর এক সিদ্ধান্তের কারনে আমাদের ৫/৬ লাখ টাকা খরচ করা টিম শেষ হয়ে গেছে।
এ সময় কক্সবাজার টাউন ক্লাবের কর্মকর্তা মংক্য রাখাইন বলেন ১০ অক্টোবর আমাদের সাথে রামু শতদল ক্লাবের মধ্যকার খেলা রেফারী আবদুল মজিদের কারনে হেরেছি। কারন শুরু থেকে তার পক্ষপাত মূলক আচরনের স্বিকার হয়েছে আমাদের খেলোয়াড়রা। আমি মনে করি তাদের আরো ভাল করে প্রশিক্ষন এবং যোগ্যতা অর্জন করা দরকার।
গতকাল মাঠে খেলা দেখতে আসা অনেক সাবেক খেলোয়াড় বলেন এই ম্যাচ রেফারীর বিতর্কিত সিদ্ধান্তের কারনে ন্যাশনাল কক্স হেরেছে। এটা নিয়ে অনেক বড় দূর্ঘটনাও হয়ে যেতে পারতো। তাই আামদের দাবী রেফারীদের আরো দক্ষতা অর্জন করা দরকার।

সর্বশেষ সংবাদ

প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করলেন কক্সবাজারের একঝাঁক তরুন আ’লীগ নেতা

আগুন মানুষের জীবন থামিয়েছে, কিন্তু ঘড়িটা থামাতে পারেনি

আত্মসমর্পণকারীরা দিয়েছে গা শিউরে উঠা তথ্য : আরো ৫শতাধিক ইয়াবাবাজের নাম

কলাগাছের গণজোয়ার দেখে জনবিচ্ছিন্নরা ভোট ডাকাতির পরিকল্পনা করছে- সাঈদী

চকরিয়ায় ৪ মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী বাবুল গ্রেপ্তার

কুতুবদিয়াপাড়ায় শিশুকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

চকরিয়া প্রেসক্লাবের সদস্য নাজমুলের উপর হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ

নাইক্ষ্যংছড়িতে নৌকার প্রার্থী অধ্যাপক শফিউল্লাহর নির্বাচনী সভা

উখিয়ায় শরনার্থী ক্যাম্পের মক্তবে রোহিঙ্গা ভাষায় পাঠদান

গোমাতলীর আবদুল কুদ্দুছ সওদাগরের ইন্তেকাল

জার্মান সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় ১১ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক

পথে পথে পর্যটক

পেকুয়ায় বিএনপির দু’শতাধিক নেতাকর্মী আ.লীগে যোগদান

চকবাজারে অগ্নিকান্ডে সৌদি বাদশাহ ও ক্রাউন প্রিন্সের শোক

উখিয়ায় নার্সারীতে সন্ত্রাসী হামলা, ভাংচুর: আহত ৩

পাকিস্তানে পালিত হলো ‘আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস’

আমীরে হেফাজত টেকনাফ আসছেন শনিবার

সকল নূরানী মাদ্রাসাকে বোর্ডের অধিভুক্ত ও সনদ পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হোক

বদরমোকাম হেফজখানার প্রধান শিক্ষক শামশুল আলম আর নেই

জনপ্রিয় তামিল সঙ্গীত পরিচালক কুরালারাসানের ইসলাম গ্রহণ