সাতকানিয়ায় মন্দিরে পুরোহীতের সস্ত্রীক আত্মহত্যা

মোঃ নাজিম উদ্দিন, দক্ষিণ চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ঋণের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে অপমানে মন্দিরে বিষপানে স্বামী-স্ত্রী আত্মহত্যা করেছে।  ১০ অক্টোবর মঙ্গলবার সকাল ১১টায় সাতকানিয়া থানা পুলিশ উপজেলার পুরাণগড় ইউনিয়নের ফকিরখীল ‘মা’ মগদেশ্বরী মন্দিরের দু’টি কক্ষ থেকে পুরোহীত স্বপন দে (৬০) ও তাঁর স্ত্রী চিনু দে (৪৭) লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হাছানুজ্জামান মোল্লা ও থানার অফিসার ইনচার্জ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালে ফকিরখীলে ‘মা’ মগদেশ্বরী মন্দির প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে সেখানে একটি কক্ষে স্বপন দে তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করে আসছেন। মন্দিরে তিনি এলাকার ধর্মীয় গুরু হিসাবে শুনাম অর্জন করে। সে হিসাবে স্বপন দে স্থানীয় কয়েক জন মহিলা ও পুরুষের মাধ্যমে এনজিও থেকে ঋণ নেয়। ইউপি সদস্য আমিনুল ইসলাম জানান, কিছু মানুষের মাধ্যমে এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে স্বপন দে তার ছেলে মিন্টু দেকে দিয়ে চট্টগ্রাম শহরে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করে। পরে ছেলে টাকা ফেরত না দেয়ায় স্বপন বিভিন্ন মানুষের মাধ্যমে নেয়া ঋণের টাকা ঠিক সময়ে পরিশোধে ব্যর্থ হয়েছে বলে স্থানীয়রা আমাকে জানান। হয়তো পাওনাদাররা তাকে টাকার জন্য চাপ দেয়ায় সোমবার রাতের কোনো এক সময় মন্দিরের ভিতর উত্তর পাশে তাদের থাকার কক্ষে স্বামী-স্ত্রী দু’জনই বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। তাদের ঘরে ১ ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে। বাবা-মায়ের মৃত্যুর খবর শুনেও ছেলে মেয়ে কেউ পুরাণগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ.ফ.ম মাহবুবুল হক সিকদার বলেন, মঙ্গলবার সকাল ১১টায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। লোকজনের মাধ্যমে জানতে পারি স্বপন দে ১০-১২ লাখ টাকার মতো স্থানীয় তার বিশ্বস্ত মানুষের মাধ্যমে এনজিও থেকে ঋণ নেয়। প্রতি সপ্তাহে ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে হয় তাকে। আজ মঙ্গলবারও ৫০ হাজার টাকার একটি কিস্তি পরিশোধের কথা ছিল। টাকা জোগাড় করতে না পারায় অপমাণে স্বামী-স্ত্রী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে মনে হচ্ছে।

সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রফিকুল হোসেন বলেন, স্বপন দে এলাকার মানুষের অনুদানে মা মগদেশ্বরী মন্দিরটি নির্মাণ করেন। এতে তিনি ধর্মীয় গুরু হিসাবে হিন্দু সম্প্রদায়ের কাছে ফকিরখীলে শুনাম অর্জন করে মন্দিরে স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করে আসছেন। মানুষের কাছে দেনা পরিশোধ করতে না পারায় অপমাণে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক তথ্যে জানা যায়। এব্যাপারে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ

বাঁকখালীর তীরে বর্জ্যের পাহাড় ফেলা হচ্ছে দৈনিক ১২০ টন বর্জ্য

রাতের অন্ধকারে সীমানা দেওয়াল ভেঙে বাড়িতে ঢুকে হামলা, স্কুল ছাত্রীসহ রক্তাক্ত হলো ৫ জন

ফেসবুকে ছবি প্রকাশ: কাপ্তাইয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে যুবক গ্রেফতার

যেভাবে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলা

রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সহায়তা দেবে কানাডা, নেদারল্যান্ডস

৩৮ আরোহী নিয়ে চিলির সামরিক বিমান নিখোঁজ

মিয়ানমারকে বয়কটের আহ্বান

বাদলের আসনে মোছলেম উদ্দিনের প্রতিদ্বন্দ্বী কে

কক্সবাজারে শিল্প ও বাণিজ্য মেলা উদ্বোধন কাল

আ. লীগ শাসনামলের মানবাধিকার নিয়ে রিপোর্ট দেবে বিএনপি

আফগানিস্তানে অভিযানে ২৫ জঙ্গি নিহত

আন্তর্জাতিক আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানি আজ

টেকনাফে বিজিবি’র সাথে বন্দুকযুদ্ধে ইয়াবাকারবারী নিহত, বিপুল ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার

বিশ্ব মানবাধিকার দিবস: গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যায় ম্লান হচ্ছে দেশের সব অর্জন

উখিয়ায় খুনের ঘটনা বাড়ছে

‘অবিবাহিত যুগল হোটেলে থাকা অপরাধ নয়’

বাহারছ‍ড়া ওয়াপদা মসজিদ সংলগ্ন এতিমখানা ও মাদ্রাসার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

চট্টগ্রাম-৮ আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেলেন মোছলেম উদ্দিন

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ১৭

শাপলাপুর ইউপি নির্বাচনে নিয়োজিত ১৫৪ জন কর্মকর্তার প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত