মেয়েদের পিরিয়ড সম্পর্কে ‘স্কুলে ছেলে ও মেয়েদের একসাথে পড়ানো উচিত’

বিবিসি :
যুক্তরাজ্যের একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠান বলছে, স্কুলের ছেলে ও মেয়েদেরকে ঋতুস্রাব বা পিরিয়ড সম্পর্কে এক সাথে শিক্ষা দান করা উচিত।
প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ইউকে নামের এই সংস্থাটি বলছে, এ নিয়ে কথা না বলাটাই ক্ষতিকর, তাই শ্রেণীকক্ষে এ বিষয়ে আলোচনা হওয়া দরকার।
এই প্রতিষ্ঠানটি ১৪ থেকে ২১ বছর বয়েসের মেয়েদের ওপর একটি জরিপ চালিয়ে দেখেছে, অর্ধেক মেয়েই এ বিষয়ে কথা বলতে লজ্জা বোধ করে।
প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল ইউকের কর্মকর্তা কেরি স্মিথ বলছেন, আমার মনে হয় পিরিয়ডকে একটা নিষিদ্ধ বিষয় হিসেবে দেখা হয়, ছেলে এবং মেয়েদেরও এ নিয়ে যথেষ্ট বলা হয় না।
জরিপে অংশ নেয়া মেয়েদের প্রতি সাতজনের একজন বলেন, তাদের যখন প্রথম পিরিয়ড শুরু হয় তখন তারা জানতেন না যে এটা কি হচ্ছে।
এদের একজন নিনা, যার ১২ বছর বয়েসে পিরিয়ড শুরু হয়। তিনি বলছিলেন, “আমি নিচে তাকিয়ে দেখলাম রক্ত। দেখে আমার তো প্রায় পাগল হবার দশা”

“তখন আমার মা আমাকে একটা স্যানিটারি টাওয়েল দিলেন, কিন্তু বিশেষ কিছু বললেন না। আমি ভাবছিলাম, যদি এর ফলে আমি মারা যাই তাহলে কি হবে।”
আরেকজন তরুণী ইনেস – বয়েস ১৮। তিনি বললেন, এ নিয়ে তার ছেলে বন্ধুদের সাথে কথা বলতেও তাকে গলদঘর্ম হতে হয়েছে।
“আমি একটা স্যানিটারি টাওয়েল কিনতে গেলাম, কিন্তু ছেলেরা এটা বুঝে ফেললো , তারা বলতে লাগলো, আমরা বাতাসে লোহার গন্ধ পাচ্ছি। আমার মাটিতে মিশে যেতে ইচ্ছে করছিল।”
কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ক্লেয়ার বলছেন, তিনি তার ভাইয়ের সাথেও এ নিয়ে কথা বলেন। “ছেলেদের সাথে এ নিয়ে কথা বললে তারা কি মরে যাবে? বরং এ নিয়ে আর মাথা ঘামাবে না।”
জরিপে আভাস পাওয়া যায় যে মাত্র ২৪ শতাংশ মেয়ে তাদের পুরুষ বন্ধুদের সাথে এ বিষয়ে নি:সংকোচে কথা বলতে পারে।
জরিপে অংশ নেয়া ছেলেদের মধ্যে একজন হচ্ছেন ১৯ বছরের নিদার। তিনি বলছেন, তিনি পিরিয়ড সম্পর্কে জানতে চান না।
তার কথা- “পিরিয়ড একটা প্রাকৃতিক ব্যাপার, এটা কোন দোষ নয়। কিন্তু এটা নিয়ে কথা বলারও কিছু নেই। আমার যদি জ্বর হয়, তাহলে আমি তো আপনাকে বলতে যাবো না যে আমার জ্বর হয়েছে?”
প্ল্যান-এর কেরি স্মিথ বলেন, আমরা মনে করি ছেলে ও মেয়েদের এ ব্যাপারে মাধ্যমিক স্কুলে একসাথে পড়ানো উচিত। ছেলেরা আমাদের বলেছে যে ঋতুস্রাব সম্পর্কে কিছুই না জানাটা ঠিক নয়।
ইংল্যান্ডের শিক্ষা বিভাগের একজন মুখপাত্র এ ব্যাপারে বলেছেন, স্কুলগুলো ইতিমধ্যেই যৌন শিক্ষা কর্মসূচির আওতায় এ বিষেয় শিক্ষাদান করতে পারছে। এটা জাতীয় বিজ্ঞান পাঠ্যসূচির মধ্যেও আছে।

সর্বশেষ সংবাদ

পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের অনিয়ম কারসাজি প্রমাণিত হলে কঠোর ব্যবস্থা : এডিএম

দুর্নীতিমুক্ত ও আন্তরিকতার সহিত সেবা দিয়ে যাচ্ছি : এ.ডি আবু নাঈম

রাতের বেলায় শীতার্তদের খোঁজে জেলা প্রশাসক, নিজের হাতে পরিয়ে দিলেন শীতবস্ত্র

জমকালো আয়োজনে ০৭০৯’র কক্সিয়ান মিলন মেলা অনুষ্ঠিত

নতুন অফিস ব্লাড ডোনার’স সোসাইটির ফুটবল টুর্ণামেন্টের ২য় সেমিফাইনাল

চকরিয়ায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি মেধাবৃত্তি পেল ৭৯ শিক্ষার্থী

চকরিয়ায় সবজি ক্ষেতে নিয়ে প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ : থানায় মামলা

স্বধর্ম পরিপালনের মাধ্যমে একজন সঠিক মানুষ হওয়া যায়-এমপি কমল

রামু আর্যসত্য মানব কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে মহাসংঘদান ও বস্ত্রবিতরণ সম্পন্ন

চকরিয়া উপজেলা জুয়েলার্স সমিতির বার্ষিক বনভোজন ও সাধারণ সভা সম্পন্ন

টেকনাফ শামলাপুর বাজার সড়কটি সংস্কার করার আহবান

কক্সবাজার বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সে ৮ ও ৯ ডিসেম্বর ইছালে ছওয়াব

বঙ্গবন্ধু শিশু-কিশোর মেলার বিবৃতি : বিভ্রান্তি থেকে বিরত থাকার আহবান

মাছুয়াখালী ক্রি‌কেট টুর্না‌মে‌ন্টে চ্যা‌ম্পিয়ন বৃহত্তর ঈদগাহ্ ক্রি‌কেট একাদশ

চকরিয়া উপজেলা ছাত্রদলের দ্বি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত

ভারত সফর থেকে এসে চেয়ারম্যান টিপু সুলতান সংবর্ধিত

১৭ বাংলাদেশি জেলেকে ফেরত দিল মিয়ানমার

আনন্দ টিভি’র ব্যুরো প্রধান আকরাম হোসাইন পেলেন বর্ষসেরা এওয়ার্ড

কক্সবাজার বায়তুশ শরফের মাহফিল ৮ ও ৯ ডিসেম্বর

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার- ১০