যিনি চাইলে মুহূর্তেই বন্ধ হবে রোহিঙ্গা নিধন

এই মানুষটিকে চিনে নিন। নাম তার মিন অং হাইং। তিনি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ। গোটা মিয়ানমারে তিনিই একমাত্র ব্যক্তি যিনি রাখাইন রাজ্যে চলমান নৃশংস ‘এথনিক ক্লিনজিং’ চাইলেই থামিয়ে দিতে পারেন। এভাবেই রোহিঙ্গাদের ওপর চলমান গণহত্যার কারিগর মিয়ানমার সরকার ও সেনাবাহিনীর মধ্যে এই একজন ব্যক্তিকেই পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থা। কারণ তিনিই ওই ভূখণ্ডের সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি। তিনি এতটাই ক্ষমতাধর, এমনকি চীন বা আমেরিকাও নাকি তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে খুব বেশি চাপ প্রয়োগ করতে নারাজ।

অন্যান্য কিছু সংবাদমাধ্যমেও অং হাইংয়ের কথা তুলে ধরা হয়েছে। এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কেউ যদি রাখাইনের রোহিঙ্গা মুসলমানদের চলমান নিষ্ঠুর গণহত্যা তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করতে পারেন, তবে তিনি সিনিয়র জেনারেল মিন অং। ইতিমধ্যে লাখ লাখ রোহিঙ্গা প্রাণ বাঁচাতে প্রতিবেশী বাংলাদেশে পালিয়ে গেছে। এই ৬১ বছর বয়সী মিলিটারি চিফ চাইলেই ‘এথনিং ক্লিনজিং’ থামিয়ে দিতে পারেন যখন তখন।
অবশ্য গোটা সেনাবাহিনী অপারেশনের অজুহাতে গণহত্যার মাধ্যমে মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করার ব্যাপারে এখনও বদ্ধপরিকর বলেই মনে হচ্ছে, জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচ।

বিশ্বাবাসী চায় মিন অং তার সেনাবাহিনীকে এই দুঃস্বপ্নের অপারেশন বন্ধ করতে নির্দেশনা জারি করুক। ‘এথনিং ক্লিনজিং’ রোহিঙ্গা নিধন করেই চলেছে। ৫ লাখের বেশি মানুষ বাংলাদেশে পালিয়েছে। মিয়ানমার ছাড়ার সময়ও মারা পড়ছে নারী-শিশু। যারা এখনও সেখানে আছেন, তাদের জীবনের ইতি যেকোনো সময় ঘটতে পারে।

এই অমানবিক হিংস্রতা থামাতে এখনই পদক্ষেপ নিতে হবে অং হাইং’কে। আর এ উদ্দেশ্যে কমান্ডার-ইন-চিফ বরাবর একটি পিটিশন দাখিলের ব্যবস্থা করেছে অ্যামনেস্টি। সেখানে যেকোনো মানুষ তার নাম, দেশের নাম এবং ইমেইল ঠিকানা প্রদানের মাধ্যমে পিটিশনের পক্ষে মত দিতে পারেন। এই পিটিশন সরাসরি মিন অং হাইং’কে রোহিঙ্গা নিধন বন্ধে তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানাবে। এই মুহূর্তের জন্যে দাবি মাত্র দুটো-

১. গণহত্যা ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের এই মিলিটারি ক্যাম্পেইন তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করতে হবে।

২. মানবাধিকার কর্মী, জাতিসংঘ এবং সাংবাদিকদের শর্তহীনভাবে রাখাইন রাজ্যে প্রবেশ করা এবং তাদের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে।

একের পর এক মানুষ মিয়ানমারের সিনিয়র জেনারেলের কাছে তার দাবির কথা তুলে ধরছেন।

https://www.amnesty.org/en/get-involved/take-action/help-stop-the-violence-in-myanmar/?gclid=EAIaIQobChMIjI6rmZPe1gIV1QMqCh1_3wjbEAAYAiAAEgIgMfD_BwE

এই লিঙ্কে গিয়ে ডানপাশের ঘরে তথ্যগুলো দিয়ে ‘টেক অ্যাকশন নাও’ বোতামে চাপ দিলেই রোহিঙ্গা নিধন বন্ধের পক্ষে আপনার মতামত চলে যাবে সেই ক্ষমতাধর ব্যক্তিটির কাছে।

সূত্র : অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল

সর্বশেষ সংবাদ

‘বিদেশের মাটিতে সিবিএন যেন এক টুকরো বাংলাদেশ’

বারবাকিয়া রেঞ্জের উপকারভোগীদের মাঝে চেক বিতরণ

কাতারে কক্সবাজারের কৃতি সন্তান ড. মামুনকে নাগরিক সমাজের সংবর্ধনা

এনজিওদের দেয়া ত্রাণের পণ্য খোলাবাজারে বিক্রি করছে রোহিঙ্গারা

পেকুয়ায় ইয়াবাসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা গ্রেফতার

উখিয়ায় পাহাড় চাপায় আবারো শ্রমিক নিহত

চট্টগ্রামে ৩দিনেও মেরামত হয়নি গ্যাস লাইন, চরম ভোগান্তি

ঝাউবনে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতিকালে ১২ মামলার আসামী নেজাম গ্রেফতার

চকরিয়ায় ১৭ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

নাইক্ষ্যংছড়িতে ১৫ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

রিক সম্পর্কে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

পানির দরে লবণ!

জীবন ঝুঁকি নিয়ে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক পারাপার!

নাইক্ষ্যংছড়িতে উৎসব মুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমা

সোনারপাড়ার মুক্তিযোদ্ধা লোকমান মাস্টার আর নেই : জোহরের পর জানাজা

দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ এর সঙ্গে শেখ হাসিনার দ্বিপাক্ষিক বৈঠক

লামা ও আলীকদম উপজেলা নির্বাচনে তিন পদে ২২ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

দেশী-বিদেশী পর্যটকদের জন্য কক্সবাজারে নিরাপত্তাবলয়

আলীকদমে তিনটি পদে ৯ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

সিবিএন এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সাবেক ছাত্রনেতা শামশুল আলমের শুভেচ্ছা