নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার শহরের কলাতলী মেরিন ড্রাইভ সড়কে সাংবাদিক মুহাম্মদ উর রহমান মাসুদের পরিবারের সদস্যদের ওপর স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে সাংবাদিক মাসুদের মা রেজিয়া বেগম (৫৫) ও বোন ফারজানা বেগম লিপি (৩০) গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় জড়িতদের কেউ আটক হয়নি। শুক্রবার (৬ অক্টোবর) বেলা আড়াইটার দিকে ঘটনাটি ঘটে।
সাংবাদিক মুহাম্মদ উর রহমান মাসুদ বলেন, আমার মায়ের ওয়ারিশি সম্পত্তিতে দোকানঘর নির্মাণকালে কক্সবাজার গোয়েন্দা পুলিশের হাতে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রসহ আটক হওয়া চিহ্নিত সন্ত্রাসী আমজাদ হোসেন শিবলু ও শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী শওকত আলী বদুর নেতৃত্বে ৭/৮ জনের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। এতে আমার মা ও বোন গুরুতর আহত হয়। অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের কারণে আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছি। সাধারণ মানুষও তাদের কাছে জিম্মি।
স্থানীয়রা জানায়, আমজাদ হোসেন শিবলু ও শওকত আলী বদু চিহ্নিত সন্ত্রাসী বাহীনি গড়ে তুলেছে। দখল, খুন, অপহরণসহ নানা অপরাধ তারা নিয়ন্ত্রণ করছে। বলতে গেলে পুরো অপরাধ জগতের ডন এই দুই সন্ত্রাসী। তাদের কারণে এলাকার আইন শৃঙ্খলা নষ্ট হচ্ছে। মূলতঃ কলাতলী এলাকায় জমির মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় শিবলু ও শওকত আলীসহ সন্ত্রাসী ও দখলবাজরা বেপরোয় হয়ে গেছে। অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে এলাকায় বড় ধরণের সংঘাত-সংষর্ষের আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি রনজিত কুমার বড়–য়া জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। খোঁজ খবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •