৩২ ঘন্টা সাগরে ভাসমান সেন্টমার্টিনদ্বীপের ৪ মাঝিমাল্লা উদ্ধার

uddar-oddar-resque_1.jpg

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ   :

গভীর বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকারে গিয়ে ইঞ্জিন বিকল হয়ে ভাসমান সেন্টমার্টিনদ্বীপের ৪ মাঝিমাল্লাকে ৩২ ঘন্টা পরে উদ্ধার করা হয়েছে। ৭ নভেম্বর রাত সাড়ে ১২টায় ৩০ জনের উদ্ধারকারী দল ঝড়ো হাওয়ার মধ্যেই ৪ মাঝিমাল্লাকে উদ্ধার করে সেন্টমার্টিনদ্বীপে পৌঁছেন। মাঝিমাল্লারা হলেন সেন্টমার্টিনদ্বীপ কুনাপাড়ার মৃত ইউসুপ আলীর পুত্র আবদুর রহমান মাঝি (৪০), পশ্চিমপাড়া সুলতান আহমদের পুত্র শামসুল আলম (২৫), পশ্চিমপাড়ার রায় উল্লাহ (৪৫), মাঝেরপাড়া মৌঃ কবিরের পুত্র মোঃ আমিন (২৪)।

৭ নভেম্বর সকালে সেন্টমার্টিনদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুর আহমদ জানান সেন্টমার্টিনদ্বীপ পশ্চিমপাড়া আবদুল জলিলের পুত্র ইলিয়াছের মালিকানাধীন একটি ফিশিং ট্রলার ৪ নভেম্বর রাতে উক্ত ৪ জন মাঝিমাল্লা সাগরে মাছ শিকারে গিয়েছিল। ৪ নভেম্বর বিকালে তাঁদের সেন্টমার্টিনদ্বীপের কুলে ফেরার কথা থাকলেও ইঞ্জিন বিকল হওয়ায় ফিরতে পারেননি। তাঁরা শাহপরীরদ্বীপের পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরে ভাসমান অবস্থায় ছিল। দুর্যোগপুর্ণ আবহাওয়ায় অন্য কোন ফিশিং ট্রলার তাঁদের উদ্ধার করতে সাহস করেনি। ঝড়ো হাওয়া তাদেরকে ভাসিয়ে কক্সবাজারের দিকে নিয়ে যায়। কৌশল অবলম্বন করে চার্জ রাখায় তাঁদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ ছিল। ৬ নভেম্বর সকালে সংকেত নামিয়ে ফেলার পর প্রয়োজনীয় রসদপাতি ও জ্বালানী তেলসহ ২টি ট্রলারে করে ৩০ জনের উদ্ধারকারী দল পাঠানো হয়। মোবাইল ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে যোগাযোগ রক্ষা করে ভাসমানদের উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে।

Top