সুরাজপুর-মানিকপুর পয়েন্টে নির্মিত কাঠের সেতু উদ্বোধন

Chakaria-12-11-16.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

চকরিয়া উপজেলার মাতামুহুরী নদীর সুরাজপুর-মানিকপুর পয়েন্টে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে নির্মিত কাঠের সেতুটি আনুষ্টানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকালে ফিতা কেটে সেতুর উদ্বোধন করেন অনুষ্টানের প্রধান অতিথি হিসেবে চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম ও সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (চকরিয়া সদর সার্কেল) কাজী মতিউল ইসলাম, চকরিয়া থানার ওসি জহিরুল ইসলাম খান, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের তিনবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আজিমুল হক আজিম।

সেতুটি উদ্বোধনের মাধ্যমে জনগনের চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। এতে করে ইউনিয়নের অন্তত ৩৫ হাজার মানুষের মাঝে স্বাধীনতার প্রায় ৪৬বছর পর যোগাযোগ ক্ষেত্রে নতুন দিগন্তের সুচনা হয়েছে। এখন থেকে জনগনের অবাধ চলাচল নিশ্চিত হওয়ার পাশাপাশি কৃষকরা জমিতে উৎপাদিত ফসল সহসা বাজারে নিতে পারবে। এর মাধ্যমে অর্থনৈতিক স্বর্নিভরতার পথ সুগম করেছে সেতুটি।

অনুষ্টানে আরো উপস্থিত ছিলেন কাকারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান, উপজেলা চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সহকারি যুবলীগ নেতা হাসানুল ইসলাম আদর, প্যানেল চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম কাজল, কামাল উদ্দিন, ছালেহা বেগম, পরিষদের সচিব অজয় রুদ্র, পরিষদের সকল সদস্য, ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রের উদ্যোক্তা সুমন দাশ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সংযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী এবং এলাকার সর্বস্থরের জনসাধারণ।

সুরাজপুর মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম বলেন, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের জনসাধারণকে এতবছর দুইভাবে বিভক্ত করে রেখেছিলো মাতামুহুরী নদী। যোগাযোগ ব্যবস্থা অনুন্নত থাকার কারনে কৃষক জমিতে উৎপাদিত ফসল ভালো দামে বিক্রি করতে পারতো না। তিনি বলেন, বিষয়টি আমলে এবছর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থায়নে নদীতে কাঠের সেতুটি নির্মাণ করা হয়েছে। যাতে যোগাযোগের ক্ষেত্রে জনদুর্ভোগ লাগব ঘটে আর কৃষকরা উৎপাদিত ফসল বিক্রি করে লাভবান হতে পারে।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাফর আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার উন্নয়নে বিশ্বাসী। তাই দেশরত্ম শেখ হাসিনার উন্নয়ন অগ্রযাত্রা চকরিয়া জনপদেও লেগেছে। তার প্রমাণ হলো সুরাজপুর-মানিকপুর বাসির জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাঠের সেতু উপহার। এভাবে দেশ এগিয়ে যাবে। উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, আগামীতে মাতামুহুরী নদীর সুরাজপুর-মানিকপুর পয়েন্টে একটি পাকা সেতু নির্মাণের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেয়া হবে। যাতে জনগনের ভাগ্য পরিবর্তন ঘটে।

সেতুটি উদ্বোধনের পর পরিষদ মিলনায়তনে ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিমের সভাপতিত্বে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্টিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ জাফর আলম ও বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাহেদুল ইসলাম, সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার কাজী মতিউল ইসলাম এবং চকরিয়া থানার ওসি জহিরুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্টানে ইউনিয়ন পরিষদের সকল সদস্য, শিক্ষা প্রতিষ্টানের প্রধান, মসজিদের ইমাম, মাদরাসা সুপার, শিক্ষক, মন্দিরের পুরোহিত ও গীর্জার পালক এবং সর্বস্থরের জনসাধারণ অংশ গ্রহন করেন।

অপরদিকে একইদিন বিকালে ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্টানে যোগদেন চকরিয়া পেকুয়া আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ সাফিয়া খাতুন ও সাতকানিয়া লোহাগাড়া আসনের এমপি আলহাজ ড.আবু রেজা নদভীর সহধর্মীনি আল্লামা ফয়জুল্লাহ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক রিজিয়া রেজা চৌধুরী। এসময় আল্লামা ফয়জুল্লাহ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে দুটি পুরাতন মসজিদের জায়গায় এক কোটি টাকা ব্যয়ে নতুন মসজিদ নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষনা দেন।

Top