সাংবাদিক জাফর আহমদের পিতার দাফন সম্পন্ন

haji-Sydul_1.jpg

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
টেকনাফে সাংবাদিক জাফর আহমদের পিতা হাজী ছৈয়দুল আমিনের জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়েছে। ২৮নভেম্বর সকাল ১১টায় উপজেলার হ্নীলা সওজ মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, পুলিশের এএসপি ফজলে রাব্বি,হোয়াইক্যং ইউপি’র চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নূর আহমদ আনোয়ারী, টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান এইচএম ইউনুচ বাঙ্গালী,আ’লীগ নেতা রশিদ আহমদ,টুরিষ্ট পুলিশের ওসি মহিউদ্দিন,টেকনাফ উপজেলা জামায়াতের আমীর অধ্যক্ষ নূরুল হোছাইন ছিদ্দিকী, হ্নীলা ইউপি’র প্যানেল চেয়ারম্যান আবুল হোছন মেম্বার,ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিকদার,হ্নীলা ইউপির ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার শামসুল আলম বাবুল,৪নং ওয়ার্ড মেম্বার হোছাইন আহমদ,৫নং ওয়ার্ড মেম্বার জামাল উদ্দিন,হোয়াইক্যং ইউপির মেম্বার আবদুল গফ্ফার ও মরহুমের পুত্র সাংবাদিক জাফর আহমেদ প্রমূখ। নামাজে জানাজা শেষে স্থানীয় দরগাহ গোরস্থানে তাঁকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। তার মৃত্যুতে এলাকাবাসী একজন মুরুব্বী,যোগ্য অভিভাবক ও ত্যাগী আওয়ামী লীগ কর্মীকে হারাল।

এদিকে সাংবাদিক জাফর আহমেদের পিতার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী,সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ নুরুল বশর,হ্নীলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান এইচকে আনোয়ার,সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সিকদার,হোয়াইক্যং মডেল ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নুর আহমদ আনোয়ারী,আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুব মোরশেদ,হ্নীলা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শেখ মোঃ রফিক উদ্দিন,বিসমিল্লাহ লাইব্রেরীর স্বত্তাধিকারী মোঃ রফিকুল ইসলাম,হ্নীলা ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার শামসুল আলম বাবুল,টেকনাফে কর্মরত সাংবাদিক মোহাম্মদ ছৈয়দ হোছাইন,আশেক উল্লাহ ফারুকী,হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম,আবুল কালাম আজাদ,নজির আহমদ সীমান্ত,কায়সার হামিদ,জাবেদ ইকবাল চৌধুরী,মুহাম্মদ তাহের নঈম, গোলাম আজম খাঁন,গিয়াস উদ্দিন,নুরুল হক,আবদুল্লাহ মনির,নুরুল করিম রাসেল,কায়সার পারভেজ চৌধুরী,মমতাজুল ইসলাম মনু,সাইফুল ইসলাম সাইফী,মুহাম্মদ ছলাহ উদ্দিন,হুমায়ূন রশিদ,জসিম উদ্দিন টিপু,আবদুর রহমান,আমান উল্লাহ আমান,আবুল আলী,শামসুল আলম শারেক,মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম,নূর হাকিম আনোয়ার,আবদুস সালাম,নুর তাজুল মোস্তফা শাহীন শাহ,হেলাল উদ্দিন,সাদ্দাম হোসাইন,মোঃ শাহীন,গিয়াস উদ্দিন ভুলু,জিয়াবুল হক,মোহাম্মদ জুবাইর,সাইফুল ইসলাম,জাফর আলম গুরা,হাফেজ মোজাম্মেল হক বাহার,ছৈয়দুল আমিন প্রিম, এম আব্দুল হক,ফরহাদ আমিন,সাইফুদ্দিন মোহাম্মদ মামুন,মোঃ রফিক,জসিম মাহমুদ,জাকারিয়া আলফাজ,নুরুল হোছাইন,রাশেদ মাহমুদ রাসেল,মোঃ ফরিদুল আলম প্রমুখ।উল্লেখ্য গত ২৭নভেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টারদিকে হ্নীলা দরগায় মোটর সাইকেল দূঘর্টনায় গুরুতর আহত হয়। তাকে দ্রুত কক্সবাজার হাসপাতাল হয়ে চমেকে নেওয়ার পথে দুপুর আড়াইটায় মৃত্যুরকোলে ঢলে পড়েন।

Top