মৌসুমী ব্যবসায়ীদের দখলে ঈদগাঁও ডিসি সড়ক 

dc-road.jpg

মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আজাদ, ঈদগাঁও:
জেলার বাণিজ্যিক এলাকা ঈদগাঁও বাজারের একমাত্র ডিসি সড়ক মৌসুমী ব্যবসায়ীরা দখল করে রেখেছে। ফলে প্রতিদিন যানজটসহ দূর্ঘটনা বেড়েই চলছে। সড়ক দিয়ে পরিবহন চলাচলে ও ঝুকি নিতে হচ্ছে। নেপথ্যে রয়েছে দোকান মালিকদের ভাড়ার উপর উপভাড়া। সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, বৃহত্তর ঈদগাঁওর ২০ সহ¯্রাধিক লোকজনের হাট হল এ ঈদগাঁও বাজার। এ বাজারের একমাত্র যাতায়াতের অবলম্বন হল ডিসি সড়ক। সম্প্রতি ডিসি সড়কের একাংশ মেরামত করা হলেও ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় এমনি মৌসুমী ব্যবসায়ীরা ময়লা-আবর্জনা ডিসি সড়কের উপরই ফেলে রাখে। তাছাড়া সড়কের অধিকাংশ জায়গা দখল করে কাঁচা বাজার থেকে শুরু সব রকমের ব্যবসায়ীরা দখল করে মুল সড়কের উপরই ব্যবসা করতে দেখা যায়। ফলে বাজারে আসা লোকজনকে যাতায়াতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। নামে মাত্র ডিসি সড়ক হলেও আবার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যবসায়ীরা উক্ত সড়ক দখল করে নির্মাণ সামগ্রী রাস্তার উপরই স্তুপ করে রাখায় পুরো সড়কটি যাতায়াতে চরম বিঘœ সৃষ্টি হচ্ছে। সপ্তাহ ধরে রাস্তা দখল করে নির্মাণ সামগ্রী রাখায় মালবাহী ট্রাক যাতায়াতে ঐ স্থানে আটকে থাকায় লোকজনকে ঘন্টার পর ঘন্টা দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। ঐতিহ্যবাহী এ বাজারে নামে মাত্র কাগজে কলমে কমিটির নেতৃবৃন্দরাও দেখেও না দেখার ভান করে থাকে। বিশেষ করে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা দোকানের সামনের একাংশ ইজারাদারদের দৈনিক মাসোহারার ভিত্তিতে ভাড়া নিয়ে পুরো সড়কটি দখল করে রাখায় এ অবস্থা আরো বেগতিক হচ্ছে। স্থানীয় প্রশাসন নিরবতা পালন করায় ইজারাদারের নাম ভাঙ্গিয়ে অনেকে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে যাচ্ছে। স্থানীয় সচেতন মহলের মতে, সড়কের উপরই টুল আদায়ের নামে চাঁদাবাজি করছে কতিপয় ব্যক্তি প্রকাশ্যে। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বছরে দুয়েকবার ভাসমান দোকানের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করলেও দুয়েক দিন যেতে না যেতেই আবারো পূর্বের চেহারায় চলে যায় মৌসুমী ব্যবসায়ীরা। বিশেষ করে মহাসড়কের প্রবেশদ্বার বাসস্টেশনের উভয় পাশের্^ ফল ব্যবসায়ী ও কসাইদের দখলে রয়েছে। মূলত এসব অবৈধ ব্যবসায়ীর কারণে বাসস্টেশনেও দূর্ঘটনা ঘটছে অহরহ। তদন্ত পূর্বক এসব উপভাড়াটিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা না নিলে সময়ের ব্যবধানে পুরো সড়ক তাদের দখলে চলে যাবে। আবার কেউ কেউ দোকান সংলগ্ন যাতায়াত রাস্তার ড্রেনের উপর দোকান বসিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে নিয়মিত। যার ফলে বৃহত্তর ঈদগাঁও তথা ইসলামপুর, ইসলামাবাদ, জালালাবাদ, চৌফলদন্ডী, পোকখালী ও ঈদগাঁওয়ের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল থেকে আসা লোকজন ঈদগাঁও বাজারের প্রধান সড়ক দিয়ে চলাচল করতে দারুনভাবে হিমশিম খাচ্ছে। এমনকি সড়কের পার্শ্ববর্তী ড্রেনের উপর বসা হরেক রকম ফুটপাত ব্যবসার কারণে বাজারের প্রধান সড়কের পরিধি সংকুচিত হয়ে যাচ্ছে। যার কারণে বাজারে আগত হাজার হাজার পথচারী ও ঈদগাঁওর পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অসংখ্য শিক্ষার্থী সড়ক দিয়ে হাঁটতে গিয়ে মূল্যবান সময় অপচয় করতে হচ্ছে। সচেতন ব্যবসায়ী ও ঈদগাঁওবাসীর প্রাণের দাবী, ডিসি সড়কের অবশিষ্ট কাজ দ্রুত সম্পন্ন ও উপভাড়াটিদের উচ্ছেদ পূর্বক পুরো সড়কটি অবৈধ দখলদারদের কাছ থেকে মুক্ত করে স্বাভাবিকভাবে জনসাধারণের চলাচলের ব্যবস্থা করা।

Top