মীর লোকমানের ৮ম একক মূকাভিনয় প্রদর্শনী ‘ওভারকাম’

mukavinoi.jpg

৮ম পূর্ণাঙ্গ একক মূকাভিনয় প্রদর্শনী ‘ওভারকাম’ নিয়ে এবার মঞ্চে আসছেন তরুণ মূকাভিনেতা মীর লোকমান। ‘বিজয়ের আলোয় সমুদ্ভাসিত হোক নির্বাক শব্দমালা’-প্রতিপাদ্য নিয়ে সমসাময়িকতা নির্ভর মোট ১০ টি স্কেচ মাইমের সমন্বয় ৭০ মিনিটের এই মূকাভিনয় প্রযোজনা। এটি প্রদর্শীত হবে আগামী ৫ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের মূল মিলনায়তনে।
সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ ও মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর বর্বর নিপীড়নে দৃশ্য সহ চলমান পৃথিবীর যুদ্ধ পীড়িত দেশ সমূহের অমানবিক পরিস্থিতিকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এখানে। বিজয়ের বহু বৎসর পরেও কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতাকে খুঁজে বেড়ানো হয়েছে এই অবাচিক প্রযোজনায়। ব্যক্তি, সমাজ ও রাষ্ট্রীয় জীবনের নানা অসঙ্গতি, সীমাবদ্ধতা এবং তা থেকে উত্তোরণের প্রচেষ্টা পরিলক্ষিত হয়েছে এতে।
মীর লোকমানের হাত ধরে মূলত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মূকাভিনয় শিল্পটির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়। ২০১১ সালের ২৭ফেব্রুয়ারি ‘না বলা কথাগুলো না বলেই হোক বলা’ স্লোগান নিয়ে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন ঢাকা ইউনিভার্সিটি মাইম অ্যাকশন(ডুমা)। প্রতিষ্ঠার পর থেকে সংগঠনটি বিভিন্ন স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় সহ সারা দেশে এবং দেশের বাইরে ৩০০ অধিক প্রদর্শনী করেছে।

মীর লোকমান ইতোমধ্যে নিজের ৭টি পূর্ণাঙ্গ একক প্রদর্শনী করে দর্শক মাতিয়েছেন। তার সর্বশেষ প্রযোজনাটি প্রদর্শিত হয় ঢাকার অলিয়ঁস ফ্রঁসেসে দেশি-বিদেশি অসংখ্য দর্শকদের সামনে।
মীর লোকমানের প্রত্যেকটি গল্পে রয়েছে সমসাময়িকতার বার্তা। সমাজে ঘটমান নানা অন্যায়-অবিচার, জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে নির্বাক প্রতিবাদ তার মূকাভিনয়ের উপজীব্য।
তিনি বলেন, মূকাভিনয় নিছক কোন বিনোদন মাধ্যম নয়। এটি এমন একটি প্রাচীন শিল্প, যা শোষকদের বিরুদ্ধে, অত্যাচারীদের বিরুদ্ধে শক্ত হাতিয়ার হতে পারে, যা কিনা সমাজ পরিবর্তনের গুরুত্বপূর্ণ প্রপঞ্চ।
প্রদর্শনিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, সম্মানিত অতিথিদের মধ্যে সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত ম. হামিদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে আজাদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাণিজ্য অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম। আরও উপস্থিত থাকবেন গার্ডিয়ান লাইফ ইন্সুরেন্স লি: এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও এম মনিরুল আলম, নরসিংদীর শিবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম মৃধা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশ্বধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. ফাদার তপন ডি রোজারিও।
উল্লেখ্য, এবারের প্রদর্শনীর টিকিট মূল্য থেকে প্রাপ্ত অর্থের পুরোটাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যান্সার ও কিডনী রোগে আক্রান্ত দু’জন শিক্ষার্থীর মাঝে প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন মীল লোকমান।

Top