ব্রাজিলের ৩ গোলে বিধ্বস্ত আর্জেন্টিনা

brasil_arzentina.jpg

অনলাইন ডেস্ক : বিশ্বকাপ দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনাকে উড়িয়ে দিয়েছে নেইমারের ব্রাজিল। বেলো হরিজনেতে স্বাগতিকদের কাছে মেসিরা হেরে গেছে ৩-০ ব্যবধানে।

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা লড়াইকে বলা হয় ল্যাটিন ফুটবলের এল ক্লাসিকো। খাদের কিনারে থাকা আকাশি-সাদারা সেই ক্লাসিকো জেতার স্বপ্ন দেখেছিল, চোট থেকে ফিরে ভিনগ্রহের ফুটবলার লিওলেন মেসি ফিরছেন বলে।

কিন্তু শুক্রবার বাংলাদেশ সময় ভোরে নেইমারের ছায়া হয়ে রইলেন মেসি। নিজে গোল করে এবং সতীর্থদের দিয়ে করিয়ে ব্রাজিলের ওয়ান্ডার কিড জিতে নিলেন মর্যাদার ক্লাসিকো।

এদিন ১২ মিনিটে ১৩ ফাউল ম্যাচে খারাপ বার্তা দিচ্ছিল। এরই মধ্যে ২৩ মিনিটে লুকাস বিলিয়া ব্রাজিলের রক্ষণ ভেদ করে প্রথম গোলে শট নেন। কিন্তু আর্জেন্টিনার ব্যর্থ শট তাঁতিয়ে দেয় নেইমারদের।

দুই মিনিট বাদে প্রথম আক্রমণেই সার্জিও রোমেরোকে বোকা বানিয়ে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। বামপ্রান্ত থেকে অধিনায়ক নেইমারের নিখুঁত পাস ধরে অনেকটা একক নৈপুণ্যে দলকে এগিয়ে নেন ফিলিপ্পে কাটিনহো।

প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন নেইমার নিজেই। গ্যাব্রিয়েলের সহায়তায় ব্রাজিলের জার্সি গায়ে নিজের ৫০তম গোল করেন তিনি।

বিরতি থেকে ফিরেও আর্জেন্টিনা ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। উল্টো ৫৮ মিনিটে আরেকটি গোল হজম করে বসে। রেনেটার পাস থেকে ব্যবধান ৩-০ করেন পাওলিনহো।

এ জয়ে তিতের অধীনে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা টানা পাঁচ ম্যাচে জয় পেল। যে বেলো হরিজনেতে সর্বশেষ ব্রাজিল জার্মানির কাছে ৭-১ ব্যবধানে বিধ্বস্ত হয়ে বিশ্বকাপ ম্যাচে কেঁদেছিল, আজ সে দুঃখ কিছুটা হলেও ভুলিয়ে দিলেন নেইমাররা।

কিন্তু চোট থেকে ফিরে লিওলেন মেসি তার নামের সঙ্গে সুবিচার করতে পারেননি। তাকে পুরো বোতলবন্দি করে রাখে ব্রাজিলের ডিফেন্স। মেসির ব্যর্থতার দিনে এদগার্দো বাউজার নেতৃত্ব নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। কারণ তার অধীনে পাঁচ ম্যাচে মাত্র একটি জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা।

এখনও বাছাই পর্বে সাতটি ম্যাচ বাকি। কিন্তু চার দিন পর কলম্বিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটিই হয়ে যাচ্ছে আর্জেন্টিনার জন্য এক অর্থে বাঁচা-মরার। সে ব্যাচে হারলে হয়তো ১৯৭০ বিশ্বকাপের পর আবারও আর্জেন্টিনাকে ছাড়াই দেখতে হবে বিশ্বকাপ!

দিনের অন্য ম্যাচে নিজেদের মাঠে প্যারাগুয়ে ৪-১ গোলে পেরুর এবং ইকুয়েডর ২-১ ব্যবধানে উরুগুয়ের কাছে হেরে গেছে। আর কলম্বিয়া ও চিলির ম্যাচ গোলশূন্য ড্র হয়েছে।

আপাতত ১১ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে আর্জেনিটনার অবস্থান ছয়ে। আর ১১ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ব্রাজিল। ২৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় উরুগুয়ে। তৃতীয় কলম্বিয়ার পয়েন্ট ১৮।

চিলির সমান ১৭ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে চতুর্থ স্থানে ইকুয়েডর। প্যারাগুয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে আর্জেন্টিনার ঠিক পেছনেই আছে। আর পেরু ১৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে অষ্টম স্থানে।

বলিভিয়াকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে এবারের বাছাইপর্বে প্রথম জয় পেয়েছে ভেনিজুয়েলা। ৪ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে থাকা বলিভিয়ার চেয়ে ১ পয়েন্ট এগিয়ে দেশটি।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে শীর্ষ চারটি দল সরাসরি খেলবে রাশিয়া বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটিকে প্লে-অফ খেলতে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের সেরা দলের সঙ্গে।

Top