বাজওয়া’র দায়িত্ব গ্রহণের দিনে নিহত ৭ ভারতীয় জওয়ান

pakistan-army-in-kashmir-boarder.jpg

পাক-ভারত উত্তেজনা যেন কিছুতেই থামছে না। নতুন করে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের নাগরোটা এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় ফের সাত ভারতীয় জওয়ান নিহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে পাঁচটার দিকে একটি সেনা ক্যাম্পে হামলা হলে প্রাণহানির এই ঘটনা ঘটে। ভারতীয় গণমাধ্যম বলছে হামলাটি পাকিস্তানের ‘মদদ-পুষ্ট’ জঙ্গিরা চালিয়েছে। এদিকে আজই পাকিস্তানের ১৬তম সেনাপ্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। আলোচিত এই জেনারেলের দায়িত্ব গ্রহণের দিনেই হামলার ঘটনাটি ঘটলো।

ভারতীয় সাত জওয়ান নিহতের ঘটনায় হামলার আশঙ্কায় নাগরোটার সকল স্কুল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। হামলার পর সীমান্ত বরাবর ছামলিয়া এবং সাম্বা সেক্টরে পাক বাহিনীর গতিবিধিকে সন্দেহজনক বলছে ভারতীয় বাহিনী। এদিকে সাম্বা সেক্টরে ভারতীয় বাহিনীর প্রতিরোধে তিনজন অনুপ্রবেশকারী সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। গোলাগুলির পরিস্থিতি বর্তমানে নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

জানা গেছে, সোমবারও ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের হান্দওয়ারা সেক্টরে এই ধরনের হামলার চেষ্টা হয়েছিল। সে সময় পরিস্থিতি সামলে নিয়েছিল ভারতীয় বাহিনী। ভারত দাবি করেছে সোমবার জওয়ানদের গুলিতে হামলাকারী একজন নিহত হয়েছে।

বর্তমানে জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে ভারত। এর আগে ২২ নভেম্বর মাচিল সেক্টরে তিন ভারতীয় জওয়ান নিহত হয়েছিল। সে সময় এই ঘটনার বদলা হিসাবে পাকিস্তান ১৪ ভারতীয় সৈন্যকে মেরে ফেলার দাবি করেছিল।

চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে কাশ্মিরের উড়ি সেনাঘাটিতে হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। সেই ঘটনায় আট ভারতীয় জওয়ান প্রাণ হারায়। ভারত দাবি করে আসছে, আক্রমণকারীরা পাকিস্তানের মদদপুষ্ট জঙ্গি গোষ্ঠী। এদিকে পাকিস্তান ভারতের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে আসছে। এরপর থেকেই ক্রমশই উত্তেজনা বাড়তে থাকে পাক-ভারত সীমান্তে। প্রতিদিনই ঘটছে গোলাগুলির ঘটনা।

Top