ফুলবাড়ীয়ায় ‘পুলিশের লাঠিচার্জে’ কলেজ শিক্ষকসহ নিহত ২

fulbaria-college.jpg

বাংলা ট্রিবিউন : ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া কলেজ সরকারিকরণ আন্দোলনে পুলিশের লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনায় কলেজ শিক্ষকসহ দু’জন নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রবিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ফুলবাড়ীয়া-ময়মনসিংহ সড়ক ব্যারিকেড দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। এসময় কলেজ শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন বলেও জানা যায়।

ফুলবাড়ীয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিফাত খান রাজি দুই ব্যক্তির মৃত্যু বিষয়ে বাংলা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করলেও লাঠিচার্জের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

নিহতরা হলেন ফুলবাড়ীয়া ডিগ্রী কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ (৪৫) ও পথচারী স্থানীয় কুশমাইল কড়ইতলার ছফর আলী (৫৫)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতদের স্বজনরা অভিযোগ করেন, সাড়ে ১২টার দিকে কলেজ আন্দোলনের বিক্ষোভকারীরা মিছিল বের করতে চাইলে ক্যাম্পাসে ঢুকে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এরপর শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ফুলবাড়ীয়া-ময়মনসিংহ সড়ক ব্যারিকেড দেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে পুলিশের বেধড়ক লাঠিচার্জে গুরুতর আহত হন ওই দু’জন। পরে চুরখাই কমিউনিটি ভেজ কলেজ হাসপাতালে তাদের নেওয়ার পথে প্রথমে ছফর আলী মারা যান। এরপর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান শিক্ষক আজাদ।

ফুলবাড়ীয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রিফাত খান রাজি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, লাঠিচার্জ করা হয়নি।

পথচারী ছফর আলীর বিষয়ে ওসি জানান, আহত ব্যক্তি ঘটনাস্থল থেকে একটু দূরে সড়কে পড়ে ছিলেন। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

Top