প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিবকে উখিয়া কলেজ পরিবারের শুভেচ্ছা

Kamal-Abdul-Naser_1.jpg

পলাশ বড়ুয়া, উখিয়া:

দক্ষিণ কক্সবাজারের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ উখিয়া কলেজ নামে যাত্রা শুরু করে ১৯৯১সালে । প্রথম কাজ ছিল উখিয়া কলেজের ব্যানারে ১৯৯১সালে এসএসসি উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের সংবর্ধণা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার-৪ আসনের তৎকালীন সাংসদ শাহজাহান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন (তৎকালীন) উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। দূর্ভাগ্যবশত: এমপি মহোদয় রাষ্ট্রীয় কাজে ব্যস্ত থাকায় শিক্ষার্থী সংবর্ধণায় উপস্থিত হতে পারেনি। তবে উনার স্ত্রী শাহীন জাহান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। সময়টি ছিল ১৯৯১সালের নভেম্বরের শেষ সপ্তাহ।

জানা যায়, ৩১ ডিসেম্বর’১৯৯১সালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ইউএনও সাহেবের সভাপতিত্বে উখিয়া কলেজের সাংগঠনিক কমিটি গঠিত হয়। উক্ত সাংগঠনিক কমিটির সভাপতি ছিলেন শাহজাহান চৌধুরী এম.পি। অধ্যক্ষ বা ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ঠিক না হওয়া পর্যন্ত সদস্য সচিবের দায়িত্বে ছিলেন তৎকালীন ইউএনও বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব মনোনীত ড. কামাল আবদুল নাছের চৌধুরী। উখিয়া কলেজের সর্বপ্রথম রিজুলেশন (কার্যবিবরী) লিখেছেন ইউএনও কামাল আবদুল নাছের চৌধুরী। কমিটির সিদ্ধান্ত মতে ১ জানুয়ারী ১৯৯২ সালে উখিয়া কলেজে ভর্তিকৃত মাত্র ১১ জন শিক্ষার্থী নিয়ে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হয়। উনার সাথে সাথে উখিয়া উপজেলায় বিভিন্ন পদে দায়িত্বে থাকা বজলুল করিম চৌধুরী (বর্তমানে রাজউক চেয়ারম্যান), অরুণ কুমার মালাকার (বর্তমানে জয়েন্ট সেক্রেটারী, খাদ্য মন্ত্রণালয়), সচিবালয় ঢাকা, নজরুল ইসলাম, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা। উক্ত সরকারি কর্মকর্তাগণ উখিয়া কলেজের জন্য অসাধারণ ভুমিকা রেখে গেছেন। উখিয়া কলেজের শুরুর দিকে অরুণ কুমার মালাকার সর্বোচ্চ ৫৪টি ক্লাশে পাঠদান করেন।

এছাড়াও ড. কামাল আবদুল নাছের চৌধুরী সচিবালয়ে সচিবের পি.এস থাকাকালে বিভিন্ন কাজে সহযোগিতা করেছেন। উনি শিক্ষায় থাকাকালীন উখিয়া কলেজ ভ্রমণ করেন। উখিয়া কলেজে ¯œাতক (সম্মান) চালু করার বিষয়েও তাঁর ভুমিকা ছিল অপরিসীম। অপরদিকে উখিয়া কলেজ অধ্যক্ষ ফজলুল করিমের মধ্যবর্তী সাসপেন্ডের বিষয়টিও বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে অতুলনীয় সাহায্য করেন বলে জানিয়েছেন অধ্যক্ষ মহোদয়।

তিনি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে নিয়োজিত থাকাকালীন সাক্ষাতকালে তাঁর বন্ধুত্বসূলভ আলাপ-আলোচনা, আদর, আপ্যায়নে মুগ্ধ কলেজ অধ্যক্ষ ফজলুল করিম।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরীকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নতুন মুখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে সরকার। রবিবার (২৭ নভেম্বর) বিকালে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। প্রজ্ঞাপন স্বাক্ষর করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন।

বিভিন্ন সময় কলেজ প্রতিষ্টাকালীন ড. কামাল আবদুল নাছের চৌধুরীর অবদানের কথা শুনে তাঁর প্রতি অসীম শ্রদ্ধাবোধের সৃষ্টি হয়। প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় খবরটি কলেজের আইটি কর্মকর্তা হিসেবে (প্রতিবেদক) অধ্যক্ষ মহোদয়কে জানানোর সাথে সাথে তিনি তাঁর সহযোগিতার প্রতি কৃতজ্ঞতায় প্রকাশ করেন এবং উখিয়া কলেজ পরিবারের পক্ষ থেকে গৌরবময় অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। ভবিষ্যতেও তাঁর আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ফজলুল করিম ও উখিয়া কলেজ পরিবার।

Top