নেতৃত্ব শূন্যতায় লাবণী স্টুডিও মালিক সমিতি

ovijog_1.jpg

সংবাদদাতা :
নেতৃত্ব শূন্যতার কারণে হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে লাবণী স্টুডিও মালিক সমিতিতে। পর্যটন নগরী কক্সবাজারের অন্যতম এই পেশাজীবী সংগঠনের সাথে জড়িত প্রায় কয়েকশ স্টুডিও কর্মী ও মালিক। পর্যটকদের বিভিন্নভাবে সেবা দিয়ে আসছে এই সংগঠনের সাথে সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায়, বর্তমানে নেই কোন কার্যকরী কমিটি। কোন কমিটি না থাকায় বিঘ্নিত হচ্ছে পর্যটন সেবা। লাবনী স্টুডিও মালিক সমিতির নির্বাচন যত দ্রুত সম্ভব সম্পন্ন হলে সমিতির অভিভাবকহীনা ঘুচবে বলে আশাকরেন পর্যটন সংশ্লিষ্টরা। তাই দ্রুত নির্বাচন দেয়ার দাবি জানান স্টুডিও মালিকরা। ১৯৯৫ সাল থেকে সমুদ্র সৈকতে লাবনী স্টুডিও মালিক কল্যান সমিতি লিঃ তাদের সমিতি রেজিষ্ট্রেশন করিয়ে একমাত্র সংগঠন হিসেবে সৈকতে ফটোগ্রাফারদের একটি নিয়মের মধ্যে নিয়ে এসেছে।

উল্লেখ্য গত ১৬/১০/২০১৬ তারিখে কক্সবাজার সদর উপজেলা সমবায় অফিসার মো আবু মকছুদকে সভাপতি, সমবায় অফিসার সঞ্জয় দাশ গুপ্ত ও বেবি আক্তারকে সদস্য করে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটিকে ১২০ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে ও নির্বাচিতদের দায়ত্ব হস্তান্তর করার নির্দেশ দেয় কক্সবাজার জেলা সমবায় অফিসার মো আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে।

এ বিষয়ে লাবণী স্টুডিও মালিক সমিতির এক সদস্য বলেন, পর্যটন নগরীর এই পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃত্ব শূন্যতা পর্যটন সেবার জন্য অনেকটা ক্ষতিকর। এ নেতৃত্ব শূন্যতা দূর করতে অভিজ্ঞ ও যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তি নির্বাচিত করা জরুরী বলে মন্তব্য করেন তিনি।

Top