টেকনাফ উপজেলা আ’লীগের সহ সভাপতির মায়ের মৃত্যু, বিভিন্ন মহলের শোক

shok-sangbad.jpg

প্রেসবিজ্ঞপ্তি:
টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি গোলাম সোবহানের মা মালেকা বানু (৮৭) বার্ধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নয়াবাজার এলাকার মৃত হাজ্বী লশকর আলীর সহধর্মীণী। ১৯ নভেম্বর ভোর ৬ টায় মরহুমার নিজ বাস ভবনে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। বাদে আছর নামাজে জানাযা শেষে স্থানীয় বকর স্থানে তাঁকে দাফন করা হয়। জানাযায় স্থানীয় চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য, আওয়ামীলীগ নেতাসহ বিভিন্ন পেশাজীবি শ্রেণী অংশ নেন। মরহুমার চার ছেলে ও ৭ মেয়েসহ অসংখ্য স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ বিবৃতি দিয়েছেন সাবেক সাংসদ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ আলী, সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশর, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক হারুনর রশিদ সিকদার, আওয়ামীলীগ নেতা বদিউল আলম, নুরুল আমিন, আজিজুল হক, নুরুল আমিন সিকদার, রাকিব আহমেদ, নুরতাজুল মোস্তফা শাহীনশাহ, অনলাইন নিউজ পোর্টাল প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক মোহাম্মদ সেলিম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নুরুল আলম চেয়ারম্যান, সাধারণ সম্পাদক নুর হোসেন চেয়ারম্যান, যুবলীগ নেতা ফজলুরল কবির, ফরিদুল আলম জুয়েল, শেখ শাহ আলম, নুরুল মোস্তফা মানিক, সৈয়দ হোসেন, মোঃ ইসমাইল , শাহ আজিজুর রহমান মামুন, মোঃ শাহ জালাল, তোফাইল আহমদ, আব্দুল মান্নান, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম মুন্না, ছাত্রলীগ নেতা সাইফুল ইসলাম শাকের, শাহ মিজবাউল হক বাবলা, মাসুক শাহরিয়াদ, আতাউর রহমান ওয়াসিম প্রমূখ। বিবৃতিদাতারা মরহুমার আতœার মাগফেরাত কামনার পাশাপাশি শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

Top