টেকনাফে পিএসসি ও ইবতেদায়ী সমাপনীতে ১১টি কেন্দ্রে পরিক্ষার্থী ৫৩৩৮ জন

PSC_1.jpg

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ:
ক্ষুদে পরিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে পাবলিক পরিক্ষার সর্র্র্র্র্ববৃহৎ আসর শিক্ষা জীবনের প্রথম সার্টিফিকেট পরিক্ষা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) এবং ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (ইএসসি) পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুসারে ২০ নভেম্বর রবিবার থেকে শুরু হবে। এবারে টেকনাফ উপজেলায় ১১টি কেন্দ্রে মোট ১৩৩টি প্রতিষ্ঠানের ৫ হাজার ৩৩৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। তম্মধ্যে ১০৩টি স্কুলের (কেজি, সরকারী-বেসরকারী স্কুলসহ) ১ হাজার ৮৩৭ জন বালক, ২ হাজার ১৩৮ জন বালিকা, মোট ৩ হাজার ৯৭৫ জন। এতে মুসলিম ৩ হাজার ৮১৩ জন, হিন্দু ৯৩ জন, বৌদ্ধ ৬৯ জন, খ্রিস্টান নেই। তাছাড়া জন প্রতিবন্ধী পরিক্ষার্থী রয়েছে। স্কুলে ছেলের চেয়ে ৩০১ জন মেয়ে পরিক্ষার্থী বেশী। স্কুলের মধ্যে রয়েছে ৩৩টি সরকারী, ২৫টি নতুন জাতীয়করণ, ১৮টি কেজি, ১৭টি ব্রাক, ৫টি নন রেজিঃ, ৫টি, এনজিও ১টি, মডেল ১টি, কমিউনিটি ১টি, উচ্চ বিদ্যালয় সংযুক্ত ১টি, দেড় হাজার স্কুল ১টি। ৩০টি মাদ্রাসার ৫৪৯ জন বালক এবং ৮১৪ জন বালিকা মোট ১ হাজার ৩৬৩ জন। মাদ্রাসা সমুহে ছেলের চেয়ে ২৮৫ জন মেয়ে পরিক্ষার্থী বেশী। মোট পরীক্ষার্থীদের মধ্যে (স্কুল ও মাদ্রাসা) ২ হাজার ৩৮৬ জন ছাত্র এবং ২ হাজার ৯৫২ জন ছাত্রী। এবারে মোট পরীক্ষার্থীদের মধ্যে বালকের চেয়ে ৫৮৬ জন বালিকা বেশি। আনন্দ স্কুল না থাকায় গত বছরের চেয়ে এবছর অংশগ্রহনকারী শিক্ষা প্রতিষ্টান ও পরিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে। টেকনাফ উপজেলায় মোট ১১টি কেন্দ্রে ১১ জন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ১১ জন কেন্দ্র সচিব, ১১ জন হল সুপার, ১১ জন সহকারী হল সুপার, ২০৫ জন ইনভিজিলেটর নিয়োগ ইতিমধ্যেই চুড়ান্ত করা হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) আশীষ বোস (০১৮১৮০০৭৫৮৪) উক্ত তথ্য নিশ্চিত করে ১৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় জানান পরিক্ষা সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে অনুষ্টানের লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই যাবতীয় প্রস্ততি সম্পন্ন করা হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রের সচিবদের অনুকুলে উত্তরপত্রসহ আনুষাঙ্গিক প্রয়োজনীয় কাগজপত্র পৌঁছানো এবং বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। জিনজিরা কেন্দ্রের প্রশ্নপত্র সেন্টমার্টিনদ্বীপ পুলিশ ফাঁিড়র লকারে, হোয়াইক্যং কেন্দ্রের প্রশ্নপত্র হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁিড়র লকারে এবং শামলাপুর কেন্দ্রের প্রশ্নপত্র শামলাপুর পুলিশ ফাঁিড়র লকারে রাখা হয়েছে। অবশিষ্ট ৮টি কেন্দ্রের প্রশ্নপত্র টেকনাফ মডেল থানার লকারে থাকবে। প্রতিদিন পরিক্ষা শুরু হওয়ার আগে যথানিয়মে কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তগণ পুলিশ প্রহরায় প্রশ্নপত্র পরিক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছানো নিশ্চিত করবেন। টুল-টেবিল ছাড়া অন্য কোন সমস্যা আপাততঃ নেই।

পিএসসিতে ২০ নভেম্বর রবিবার ইংরেজী, ২১ নভেম্বর সোমবার বাংলা, ২২ নভেম্বর মঙ্গলবার বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয়, ২৩ নভেম্বর বুধবার প্রাথমিক বিজ্ঞান, ২৪ নভেম্বর বৃহষ্পতিবার ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা, ২৭ নভেম্বর রবিবার গণিত। ইএসসিতে ২০ নভেম্বর রবিবার ইংরেজী, ২১ নভেম্বর সোমবার বাংলা, ২২ নভেম্বর মঙ্গলবার বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং বিজ্ঞান, ২৩ নভেম্বর বুধবার আরবী, ২৪ নভেম্বর বৃহষ্পতিবার কুরআন ও তাজবীদ এবং আকাইদ ও ফিকাহ, ২৭ নভেম্বর রবিবার গণিত। পরিক্ষা প্রতিদিন সকাল ১১টায় শুরু হয়ে দেড়টায় শেষ হবে। তবে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন পরিক্ষার্থীদের (প্রতিবন্ধী) জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট বরাদ্দ থাকবে।

২০ নভেম্বর রবিবার এই পরীক্ষা এক যোগে শুরু হয়ে ২৭ নভেম্বর রবিবার শেষ হবে। টেকনাফ উপজেলায় এবারের ১১টি কেন্দ্র হচ্ছে যথাক্রমে হোয়াইক্যং আলী-আছিয়া হাইস্কুল, নয়াবাজার সরকারী প্রাইমারী স্কুল, হ্নীলা শাহ মজিদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা, হ্নীলা আদর্শ সরকারী প্রাইমারী স্কুল, লেঙ্গুরবিল সরকারী প্রাইমারী স্কুল, সাবরাং সরকারী প্রাইমারী স্কুল, শাহপরীরদ্বীপ সরকারী প্রাইমারী স্কুল, সেন্টমার্টিনদ্বীপ সরকারী প্রাইমারী স্কুল, বড়ডেইল সরকারী প্রাইমারী স্কুল, শামলাপুর সরকারী প্রাইমারী স্কুল, টেকনাফ মডেল সরকারী প্রাইমারী স্কুল।

ইবতেদায়ী মাদ্রাসা সমূহের পরীক্ষার্থীদের জন্য পৃথক কেন্দ্র করা হয়নি। নিকটবর্তী স্কুল কেন্দ্রেই তারা পরীক্ষা দেবে। তবে ৪নং হ্নীলা আদর্শ সরকারী প্রাইমারী স্কুল, ৭নং শাহপরীরদ্বীপ সরকারী প্রাইমারী স্কুল ও ৮নং জিনজিরা সরকারী প্রাইমারী স্কুল এই ৩টি কেন্দ্রে মাদ্রাসার এবং ৩নং হ্নীলা শাহ মজিদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রে স্কুলের কোন পরিক্ষার্থী নেই। প্রত্যেক কেন্দ্রে একজন সরকারী অফিসার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, একজন কেন্দ্র সচিব হিসাবে স্কুলের প্রধান শিক্ষক, একজন হল সুপার, একজন সহকারী হল সুপার, প্রতি ২৫ জন পরীক্ষার্থীর জন্য একজন করে পরিদর্শক নিয়োজিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

১নং হোয়াইক্যং আলী আছিয়া হাইস্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মোস্তফা কামাল চৌধুরী মুসা (০১৭১৪৩৭১৩১১) কেন্দ্র সচিব, সমবায় অফিসার মোঃ শামসুল আলম কুতুবী (০১৮১৪৪১৪৮৫৪) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, নয়াবাজার সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ রিদুয়ান (০১৮১৮৬৫০৬৯২) হল সুপার, আলী আকবরপাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ আলী (০১৮১২৯৯৬০১১) সহকারী হল সুপার। এতে ১৫টি স্কুলের ২৪০ জন ছাত্র ৩৬৬ জন ছাত্রী এবং ১টি মাদ্রাসার ২৬ জন ছাত্র ৩৭ জন ছাত্রী মোট ১৯টি প্রতিষ্ঠানের ৬৬৯ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

২নং নয়াবাজার হাইস্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক বাবু রুপন কান্তি বড়–য়া (০১৮২৪৮৫৫২৪৪) কেন্দ্র সচিব, উপজেলা বিআরডিবি অফিসার মোঃ এনামুল হক (০১৯৯১১৩৩৫১০) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, লেদা সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুর আহমদ (০১৮১৮৬৮৯৯৬৪) হল সুপার, লাতুরীখোলা তালেব-বাহার সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক ইয়াকুব আলী (০১৮২০০০৪৭২৪) সহকারী হল সুপার। এতে ১২টি স্কুলের ১৫৪ জন ছাত্র ২২৭ জন ছাত্রী এবং ৩টি মাদ্রাসার ৫৫ জন ছাত্র ১০৩ জন ছাত্রী মোট ১৫টি প্রতিষ্টানের ৫৩৯ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৩নং হ্নীলা শাহ মজিদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রে মাদ্রাসার সহকারী অধ্যাপক নুরুল বশর ছিদ্দিকী (০১৮১৭৩২৬৪৫৮) কেন্দ্র সচিব, সহকারী প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ শরিফুল ইসলাম (০১৮১৬৪৭১৫৪৮) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, পানখালী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মাহমুদুর রহমান (০১৮১৪৩০৭৬৮৭) হল সুপার, উলুচামরী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক হোছাইন আহমদ (০১৮১৪৪৮৫৯৪০) হল সুপার। এতে ১০টি মাদ্রাসার ১৯৪ জন ছাত্র ২৫২ জন ছাত্রী মোট ৪৪৬ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৪নং হ্নীলা আদর্শ সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক এরশাদুর রহমান (০১৭২৭০০৮৭১০) কেন্দ্র সচিব, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ ফেরদাউস হোসেন (০১৭১৬৫৯৯০৬২) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ঝিমংখালী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ জাকারিয়া (০১৮১৮৯১৯৮৩৩) হল সুপার, কাঞ্জরপাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক কুতুব উদ্দিন (০১৮২২৯১৩৪৩৪) সহকারী হল সুপার। এতে ১৭টি স্কুলের ৩০৯ জন ছাত্র ৩৮৫ জন ছাত্রী মোট ৬৯৪ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৫নং লেঙ্গুরবিল সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক শাহাদত আলী (০১৮১৮৭৬৫৩৪৭) কেন্দ্র সচিব, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) সুজাত কুমার চৌধুরী (০১৮৬০৩৫০৮৪৪) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, খারাংখালী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক বেলাল উদ্দিন (০১৮৪৭৩১১৫৯) হল সুপার, শাহপরীরদ্বীপ মাঝেরপাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম (০১৮১৫০১৪০৮৫) সহকারী হল সুপার। এতে ৯টি স্কুলের ২১৫ জন ছাত্র ২২৮ জন ছাত্রী এবং ৩টি মাদ্রাসার ১২ জন ছাত্র ৫৫ জন ছাত্রী মোট ১২টি প্রতিষ্টানের ৫১০ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৬নং সাবরাং সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক আনিস উল্লাহ (০১৮১৪৩৮৮৫২৮) কেন্দ্র সচিব, উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার মোঃ আলমগীর কবির (০১৮৪৩৬০৩০৫৯) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, পল্লানপাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আলম (০১৮১৩৯৭৭৫৯৪) হল সুপার, হাবিরছড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মমতাজ আহমদ (০১৮৪৩৬০২৭৭২) সহকারী হল সুপার। এতে ১৪টি স্কুলের ২৫৮ জন ছাত্র ২৪৯ জন ছাত্রী এবং ২টি মাদ্রাসার ২১ জন ছাত্র ৪২ জন ছাত্রী মোট ১৬টি প্রতিষ্ঠানের ৫৭০ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৭নং শাহপরীরদ্বীপ সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক কলিমুল্লাহ (০১৮১৭৭৮০৮৭৯) কেন্দ্র সচিব, ইউআরসির ইন্সট্রাক্টর মোঃ ইলিয়াছ (০১৮১৯৮৩৭০৮৯) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, মুন্ডারডেইল সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুরুল আলম (০১৮১৫৮০৯০৬৮) হল সুপার, উলুবনিয়া জামান-সখিনা সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম (০১৮২৫৬৫২৬৭০) সহকারী হল সুপার। এতে ৬টি স্কুলের ১১৯ জন ছাত্র ৯০ জন ছাত্রী মোট ২০৯ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৮নং জিনজিরা (সেন্টমার্টিনদ্বীপ) সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ রফিক (০১৮২২৯৭২০৪৯) কেন্দ্র সচিব, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের ছানাউল্লাহ (০১৮১৫৮৬৪৫৩৫) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, সাবরাং কমিউনিটি সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ নজরুল ইসলাম (০১৮১২৩৪২৩৬৩) হল সুপার, হরিখোলা সরকারী প্রাইমারী স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নুর মোহাম্মদ (০১৮২১৫৭১৮৪৯) সহকারী হল সুপার। এতে ২টি স্কুলের ৪৫ জন ছাত্র ৩৬ জন ছাত্রী মোট ৮১ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

৯নং বড়ডেইল সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হোছাইন (০১৮৪০৫৭২২৩৯) কেন্দ্র সচিব, জনস্বাস্থ্য উপ-সহকারী প্রকৌশলী ক্যছাই মং চাক (০১৫৫৬৪২৪৫০৭) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, উত্তর শীলখালী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক শফিউল্লাহ (০১৮১৫৫৪১৯৩৪) হল সুপার, দরগাহছড়া হামিদিয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুরুল হোছাইন (০১৮১৪৮৭১৫৮৪) সহকারী হল সুপার। এতে ৮টি স্কুলের ৮০ জন ছাত্র ১১৯ জন ছাত্রী এবং ৪টি মাদ্রাসার ৬৬ জন ছাত্র ৮৩ জন ছাত্রী মোট ১২টি প্রতিষ্ঠানের ৩৪৮ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

১০নং শামলাপুর সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ উল্লাহ (০১৮১২৩৬৬৭৮৭) কেন্দ্র সচিব, পরিবার পরিকল্পনা অফিসার শ্রুতি পুর্ণ চাকমা (০১৮২৩৯৭৩০০৭) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, জাহাজপুরা সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক কামরুল হুদা (০১৮১৩৯৯০৭২৫) হল সুপার, হাজামপাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক কায়সার নেওয়াজ (০১৮২২৩৪৫৩০৫) সহকারী হল সুপার। এতে ৫টি স্কুলের ৯৬ জন ছাত্র ১৪৮ জন ছাত্রী এবং ৪টি মাদ্রাসার ৭৬ জন ছাত্র ১৫২ জন ছাত্রী মোট ৯টি প্রতিষ্ঠানের ৪৭২ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

১১নং টেকনাফ মডেল সরকারী প্রাইমারী স্কুল কেন্দ্রে প্রধান শিক্ষক এইচএম কামাল (০১৮১৫০১৪৭৩৪) কেন্দ্র সচিব, উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ শহিদুল ইসলাম (০১৮২১১০৬৩০৪) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, লম্বরী সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম (০১৮১৩৭০১৩৩৭) হল সুপার, ডাংগরপাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুরুল আলম (০১৮১২৩৪২৩৬৩) সহকারী হল সুপার। এতে ১৫টি স্কুলের ২৯৭ জন ছাত্র ৩১৪ জন ছাত্রী এবং ৩টি মাদ্রাসার ৯৯ জন ছাত্র ৯০ জন ছাত্রী ১৮টি মোট প্রতিষ্টানের ৮০০ জন পরিক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে।

উল্লেখ্য, ২০১২ সনে মোট পরিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৮১৬ জন, ২০১৩ সনে ছিল ৩ হাজার ৭১২ জন, ২০১৪ সালে ছিল ৪ হাজার ৫৯৩ জন এবং ২০১৫ সালে ৫ হাজার ৬৭৭ জন।

Top