টেকনাফে অকালে ঝরে গেল ৪০৬ সম্ভাবনাময় ক্ষুদে পরিক্ষার্থী

psc-2_1.jpg

প্রতীকী ছবি

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ :

৪০৬ জন সম্ভাবনাময় ক্ষুদে পরিক্ষার্থী ঝরে গিয়ে টেকনাফে ২৭ নভেম্বর সাঙ্গ হল ক্ষুদে পরিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহনে পাবলিক পরিক্ষার সর্ববৃহৎ আসর প্রাইমারী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা। এতে অকালে ঝরে গেছে ৪০৬ জন সম্ভাবনাময় ক্ষুদে পরিক্ষার্থী। তম্মধ্যে পিএসসিতে ২০২ জন এবং ইএসসিতে ২০৪ জন। সমগ্র দেশের মধ্যে শিক্ষার হার সর্বনিম্ম টেকনাফ উপজেলায় এত বেশী পরিক্ষার্থী অকালে ঝরে যাওয়া অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

জানা যায়, টেকনাফে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণের জন্য পিএসসি হতে ১ হাজার ৮৩৭ জন ছাত্র এবং ২ হাজার ১৩৮ জন ছাত্রীসহ মোট ৩ হাজার ৯৭৫ জন পরীক্ষার্থী রেজিষ্ট্রেশনভূক্ত হয়। এতে ১০৩টি স্কুলের ৯৯ জন ছাত্র, ১০৩ জন ছাত্রী, মোট ২০২ জন অনুপস্থিত ছিল। ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার জন্য ৩০টি মাদ্রাসার ছাত্র ৫৪৯ জন এবং ছাত্রী ৮১৪ জনসহ মোট ১ হাজার ৩৬৩ জন পরীক্ষার্থী রেজিষ্ট্রেশনভূক্ত হয়। এতে ৭৮ জন ছাত্র এবং ১২৬ জন ছাত্রী, মোট ২০৪ জন অনুপস্থিত ছিল।

উল্লেখ্য, ক্ষুদে পরিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে পাবলিক পরিক্ষার সর্র্র্র্র্ববৃহৎ আসর শিক্ষা জীবনের প্রথম সার্টিফিকেট পরিক্ষা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) এবং ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (ইএসসি) পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুসারে ২০ নভেম্বর রবিবার থেকে শুরু হয়ে ২৭ নভেম্বর রবিবার শেষ হয়েছে। টেকনাফ উপজেলায় মোট ১১টি কেন্দ্রে ১১ জন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ১১ জন কেন্দ্র সচিব, ১১ জন হল সুপার, ১১ জন সহকারী হল সুপার, ২০৫ জন ইনভিজিলেটর দায়িত্ব পালন করেছেন।

 

Top