চৌফলদন্ডীতে ইসিসি চালক সন্ত্রাসী হামলার শিকার

Mizan_1.jpg

ঈদগাঁও সংবাদদাতা :

কক্সবাজারের চৌফলদন্ডীতে পরিবহন চালক সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে। পুলিশ সন্ত্রাসীদের বন্দী দশা থেকে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করেছে। ৭ নভেম্বর দুপুরে ইউনিয়নের খামার পাড়া থেকে এ চালককে জোর পূর্বক ধরে নেয়া হয়। প্রাপ্ত তথ্যে প্রকাশ, ঈদগাঁও-চৌফলদন্ডী-কক্সবাজার সড়কে চলাচলরত ইসিসি পরিবহনে (চট্টমেট্রো ১১-০০৩২) যাত্রী নিয়ে চালক মিজানুর রহমান (২০) সোমবার দুপুরে কক্সবাজার যাচ্ছিলেন। তার গাড়ীটি চৌফলদন্ডী খামার পাড়ায় পৌঁছুলে কয়েকজন দূর্বৃত্ত জোরপূর্বক তার গাড়ী থামিয়ে তাকে ধরে পাশর্^বর্তী একটি ঘরে নিয়ে যায়। পরে সেখানে তাকে বেদম মারধর করে। এ সময় তার কাছ থেকে গাড়ীর চাবি, হাতঘড়ি, মানিব্যাগ, মোবাইল কেড়ে নেয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর পেয়ে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই ফিরোজ আহমদ মালিক-শ্রমিকের যৌথ অংশগ্রহণে বন্দী দশা থেকে ঐ চালককে উদ্ধার করে। পরে তাকে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহত যুবক জালালাবাদ মোহনবিলার আলী আহমদের পুত্র। একজন যাত্রীর সাথে তর্কাতর্কির জের ধরে হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন ঈদগাঁও-চৌফলদন্ডী শাখার নেতৃবৃন্দ চিহ্নিত দুষ্কৃতকারী মিজান, আমান উল্লাহ গংদের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চালাচ্ছেন বলে জানান। নেতৃবৃন্দ হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, অবিলম্বে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা না হলে ঈদগাঁও-চৌফলদন্ডী-খুরুষ্কুল সড়কে গাড়ী চলাচল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা হবে। সংঘটিত ঘটনায় সংশ্লিষ্ট মালিক-শ্রমিকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

Top