চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে যুবক আহত

churikaghat-knife_1.jpg

মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি :

বান্দরানের লামা উপজেলায় চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে বন্ধু জাহাঙ্গীর আলমের ছুরিকাঘাতে মো. আলমগীর হোসেন (২০) নামে এক যুবক আহত হয়েছে। শুক্রবার ভোরে উপজেলার লামা সদর ইউনিয়নের মেরাখোলা বৌদ্ধ বিহারের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত বৌদ্ধ মেলায় এ ঘটনা ঘটে। আহত আলমগীর হোসেন লামা পৌরসভা এলাকার হাসপাতাল পাড়ার বাসিন্দা মো. এমরান হোসেনের ছেলে এবং অভিযুক্ত মো. জাহাঙ্গীর আলম বড়নুনারবিল পাড়ার বাসিন্দা মৃত মনছুর আলীর ছেলে।

লামা মৌজার হেডম্যান ও মেলা পরিচালনা কমিটির সভাপতি হ্লা থোয়াইহ্লা মার্মা সাংবাদিকদের জানান, আহত আলমগীর তার বন্ধু মো. জাহাঙ্গীর আলম (২৫) সহ ১০/১২ জন রাতে মেলা দেখতে যায়। তারা মদ পান করে মেলায় বসা বিভিন্ন দোকান থেকে চাদাঁ তোলার চেষ্টা করে। পরে তাদেরকে কিছু টাকা দিয়ে চলে যেতে বলেন তারা। তারা সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে মেরাখোলা বাজারে গিয়ে শুক্রবার ভোর টার দিকে চাদাঁ তোলার বিষয় নিয়ে নিজেদের মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। এক পর্যায়ে পৌরসভা এলাকার বাসিন্দা মৃত মনছুর আলীর ছেলে মো. জাহাঙ্গীর আলম তার বন্ধু আলমগীরকে আঘাত করে। এতে আলমগীর গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এদিকে, ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন মো. জাহাঙ্গীর আলমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

লামা হাসপাতালের সহকারী মেডিকেল অফিসার ডাঃ সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, পেটের বাম পাশের নিচের অংশে ছুরির আঘাত লেগেছে। স্পর্শকাতর স্থানে গভীর ক্ষত হওয়ায় এবং রোগীর অবস্থা আশংকাজনক বলে তাকে চমেক হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ইকবাল হোসেন বলেন, মেলায় মাতাল অবস্থায় নিজেরা নিজেরা ঝগড়া দিয়ে একে অপরকে ছুরি মেরেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত জাহাঙ্গীরকে আটক করা হয়েছে।

Top