গণতন্ত্রের কবর হয়েছে, এখন চলছে মিলাদ

fak.jpg

দেশে রাজনৈতিক সংকট চলছে এমন দাবি করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশের মানুষ গণতান্ত্রিক চেতনা নিয়ে যুদ্ধ করেছিল। কিন্তু সরকার তা থেকে সরে এসেছে। গণতন্ত্রের কবর হয়েছে বহু আগে, এখন মিলাদ-কুলখানি চলছে। রবিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার‌্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলেনে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। ৭ নভেম্বর জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে বারবার চেষ্টা করেও সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ায় সংবাদ সম্মেলনটি করা হয়। সরকার সমাবেশের অনুমতি না দেয়ায় বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা করেন ফখরুল। ঘোষণা অনুযায়ী সোমবার ঢাকার থানায় থানায় বিক্ষোভ এবং মহানগর ও জেলায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করবে দলটি। মির্জা ফখরুল বলেন,‘অবৈধভাবে গঠিত সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে বারবার একটি রাষ্ট্র পরিচালনাকারী বৃহৎ রাজনৈতিক দল বিএনপিকে সমাবেশ করতে দিচ্ছে না। দেশে যে সংকট চলছে তা থেকে উত্তরণের জন্য আমরা বারবার সংলাপের কথা বলছি। আমরা আবার সরকারকে বলছি, সময় শেষ হওয়ার আগে আপনাদের শুভবুদ্ধির উদয় হবে।’ সমাবেশের অনুমতি না দেয়ার নিন্দা জানিয়ে ফখরুল বলেন, ‘এ থেকে প্রমাণ হয় সরকার পুরোপুরিভাবে রাষ্ট্র পরিচালনা করতে ব্যর্থ। তারা আইনের শাসন, জনমতে বিশ্বাস করে না। এরা সব রীতিনীতি বাদ দিয়ে একদলীয় বাকশাল কায়েম করতে চায়।’ সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, আতাউর রহমান ডালিম, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সহ-দপ্তর সম্পাদক মুনির হোসেন, সহ-প্রচার সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ।

Top