এমপি বদির জামিন: স্বস্থি উখিয়া-টেকনাফবাসীর

mp-bodi.jpg

ইমাম খাইর, সিবিএন:

কারান্তরীন হওয়ার ১৫ দিনের মাথায় জামিন পেয়েছেন কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুসের হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানী শেষে ৬ মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেন।

জামিনের খবরে স্বস্থি এসেছে এমপি বদির নির্বাচনী এলাকার মানুষের মাঝে।

সম্পদের তথ্য গোপনের দায়ে গত ২ নভেম্বর এমপি আবদুর রহমান বদিকে ৩ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন ঢাকার তৃতীয় বিশেষ জজ আবু আহমেদ জমাদারের আদালত। একই সঙ্গে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিনমাসের কারাদণ্ডাদেশ ছিল বদির বিরুদ্ধে।

১০ নভেম্বর দুর্নীতির মামলায় ৩ বছরের কারাদণ্ডের রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন এমপি আবদুর রহমান বদি।

বাদির পক্ষের আইনজীবী নাসরিন সিদ্দিকা লীনা মুঠোফোনে কক্সবাজার নিউজ ডট কম (সিবিএন)কে জানান, বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে ১০ নভেম্বর আপিল দায়ের করা হয়। আপিল আবেদন আদালতে শুনানী শেষে এমপি বদিকে ৬ মাসের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন বিচারক।

একই সঙ্গে বিচারিক আদালতের ১০ লাখ টাকা জরিমানাও স্থগিতাদেশ দিয়েছে আদালত।

শুনানীকালে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পৃথক দু’টি ধারায় মামলাটি করেছিল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তবে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের ধারাটি আদালতে প্রমাণিত হয়নি এমপি বদির বিরুদ্ধে।

২০১৪ সালের ২১ আগস্ট এমপি আবদুর রহমান বদির বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলাটি করেন দুদকের উপ-পরিচালক আবদুস সোবহান।

জ্ঞাত আয়বহির্ভুত সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের অভিযোগে এমপি বদির বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ২০১৪ সালের ২১ আগস্ট বদির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় দুদক।

এতে বলা হয়, সার্বিক তদন্তে আবদুর রহমান বদি তার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত ১০ কোটি ৮৬ লাখ ৮১ হাজার ৬৬৯ টাকা মূল্যমানের সম্পদ গোপন করে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন।

এ ছাড়া ২০০৮ ও ২০১৩ সালে নির্বাচন কমিশনে দাখিল করা সম্পদ বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা গেছে তার সম্পদের পরিমাণ ৩৫১ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এদিকে এমপি আবদুর রহমান বদির জামিনের সংবাদে স্বস্থি ফিরে এসেছে উখিয়া-টেকনাফবাসীর।

বদির নির্বাচনী এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের মাঝে স্বস্থি লক্ষ করা গেছে।

টেকনাফ থেকে বয়োবৃদ্ধ আবদুল করিম আবদুর রহমান বদির জামিনের সংবাদে দীর্ঘ শ্বাস ফেলে অাল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতার কথা প্রকাশ করেন।

 বিশেষ করে, যারা এমপি বদির মুক্তির জন্য আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে গিয়েছিল তাদের আনন্দের মাত্রাটা একটু বেশী লক্ষনীয়।

Top