উখিয়ার স্কুল ছাত্র মিয়ানমার নাগরিকের হাতে অপহৃত

opohoron.jpg

মাহমুদুল হক বাবুল, উখিয়া :

কক্সবাজরের উখিয়ায় ইয়াবার বকেয়া টাকা ঠিক সময়ে পরিশোধ না করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্কুল ছাত্রকে মিয়ানমার নাগরিক কর্তৃৃক অপহরণের খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সকাল ৮ টার দিকে।

জানা গেছে, উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের পূর্ব ডিগলিয়াপালং এলাকার ইয়াবা ব্যবসায়ীদের অন্যতম গডফাদার মোঃ শাহ জাহান প্রকাশ কালা শাহ জাহান ও মিয়ানমারের রেইক্ষা পাড়া এলাকার আব্দুস ছালাম দীর্ঘ দিন ধরে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ইয়াবা পাচার করে রাতা রাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছে পরিনত হয়ে কোটিপতির খাতায় নাম লিখিয়েছেন । আজ থেকে প্রায় ১ মাস আগে থেকে দুই জনের মধ্যে ইয়াবা পাচারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে  ভুল বুঝাবুঝির সৃষ্টি হয় । ওই সূত্র ধরে মিয়ানমার রেইক্ষাপাড়া এলাকার আব্দুস ছালামের ইয়াবা ব্যবসার পাওনা ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা না দিয়ে তাকে উল্টো হুমকি ধমকিও দিয়ে যাচ্ছিল । তার জের ধরে মিয়ানমারের রেইক্ষা পাড়া এলাকার আব্দুস ছালাম শুক্রবার সকালে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে পূর্ব ডিগলিয়াপালং এলাকার কালা শাহ জাহানের ছেলে তোফাইল ইসলাম শাকিল (৮) কে সকাল ৮ টার দিকে পূর্ব ডিগলিয়া পালং এলাকা থেকে জোরপূর্বক অপহরণ করে মিয়ানমারের রেইক্ষা পাড়া এলাকায় নিয়ে যায় । সে পূর্ব ডিগলিয়াপালং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২য় শ্রেনীর ছাত্র। যার রোল নং – (৫০)। ডিগলিয়া পালং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ছৈয়দ করিম ছাত্র অপহরণের সত্যতা স্বীকার করেন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, অপহহৃত শিশুর জেঠা অপর মাদক ব্যবসায়ী লুডা আকবর সহ আত্মীয় স্বজনরা অপহৃত শিশুকে উদ্ধারের জন্য সীমান্তের ৩৯ নাম্বার পিলারের পাশে অবস্থান করছে। অপহ্নত শিশুর পিতা কালা শাহ জাহান তার ছেলে অপহরণের সত্যতা স্বীকার করেন এবং ছেলেকে উদ্ধারের জন্য জোর তৎপরতা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে থানার ওসি মোঃ আবুল খায়ের স্কুল ছাত্র অপহরণের কথা শুনেছেন, তবে অপহ্নত শিশুর পিতা অভিযোগ নিয়ে থানায় আসলে অপহ্নত শিশু উদ্ধারের জন্য প্রশাসনিক ভাবে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

Top