ঈদগাঁও বাজারে আকষ্মিক অগ্নিকান্ডে জনমনে আতঙ্ক

fire-shop.jpg

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও, কক্সবাজার :

ঈদগাঁওতে অল্পের জন্য অগ্নিকান্ড থেকে রক্ষা পেয়েছে কয়েকটি বাণিজ্যিক ভবনের অর্ধশতাধিক দোকান পাট। গত রাতে (২১ নভেম্বর) বাজারের পশ্চিম গলির বেদার মিয়া মার্কেটের একটি দোকানে সংঘটিত আকষ্মিক অগ্নিকান্ড নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হওয়ায় এ অগ্নিকান্ডের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে। সরেজমিন পরিদর্শনে জানা গেছে, গত রাত আনুমানিক ৯টার দিকে ঈদগাঁও বাজারের পশ্চিম গলির বেদার মিয়া মার্কেটের হোছাইন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আকষ্মিক অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। দোকানটির পিসবোর্ডের ছাদ থেকে সৃষ্ট এ অগ্নিকান্ডে অর্ধশতাধিক ছাতা পুড়ে যায়। ছাদটি আগুনের লেলিহান শিখায় বিরাট ফুটো হয়ে যায়। অগ্নিকান্ড শুরু হলে দোকান মালিক, কর্মচারী, আশপাশের দোকানদারসহ দিকবিদিক ছুটোছুটি করতে থাকে। পরে মনে রেখ’র মালিক কর্তৃক সরবরাহকৃত গ্যাস সিলিন্ডার থেকে গ্যাস ও পাউডার ছিটানো হলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। স্থানীয় স্বর্ণ ব্যবসায়ী জসিম উদ্দীন ও শিক্ষক সেলিম উল্লাহ জানান, অগ্নিকান্ড নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব না হলে বহুতল এ বাণিজ্যিক ভবনের পাশাপাশি অন্য মার্কেট ও নিকটস্থ কেন্দ্রীয় মসজিদের শতাধিক দোকান পাট রক্ষা করা সম্ভব হতো না। ক্ষতিগ্রস্থ দোকানদার আহমদ হোছাইনের ধারণা, ছাদের উপর রক্ষিত ছাতার সাথে বৈদ্যুতিক আর্থিং যুক্ত হয়ে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারে। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে ৭/৮ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে বলে অনুমান স্থানীয় ব্যবসায়ীদের। খবর পেয়ে ঈদগাঁও পুলিশ ক্ষতিগ্রস্থ দোকান পরিদর্শন করেন। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট দোকান মালিক ও কর্মচারীদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। অগ্নিকান্ডের ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে সাধারণ জনগণ ঘটনাস্থলে জড়ো হয়।

Top