আত্মহত্যা করেছেন ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ

diaz-1.jpg

চট্টগ্রাম সংবাদদাতা:
চট্টগ্রাাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংলগ্ন ভাড়া বাসায় নিহত কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান “আত্মহত্যা” করেছেন এমন রিপোর্ট এসেছে ময়না তদন্তের প্রতিবেদনে।

আজ বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে পুলিশের কাছে ময়নাতদন্তে প্রতিবেদন পেশ করেছে ফরেনসিক বিভাগ।

তবে এ রিপোর্ট প্রত্যাক্ষাণ করেছেন দিয়াজের পরিবার।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর বলেন, ফরেনসিক বিভাগের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আমাদের কাছে পৌঁছেছে। রিপোর্টে মৃত্যুর কারণ হিসেবে ‘আত্মহত্যা’ উল্লেখ করেছে ফরেনসিক বিভাগ।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক দিয়াজ ইরফানের ঝুলন্ত লাশ পাওয়া যায় রবিবার রাতে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২নং গেট এলাকায় চার তলা ভবনের ভাড়াবাসার নিজ কক্ষে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলন্তবস্থায় রাত ৯টায় প্রতিবেশিরা দেখে পুলিশকে খবর দেয়। ঐ রাত দেড়টায় পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

দিয়াজ বিশ্ববদ্যালয়ের ২০০৬-০৭ শিক্ষাবর্ষের ফাইন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার ঝুলন্ত লাশ পাওয়ার পর ছাত্রলীগ চবি ছাত্রলীগের একাংশের অভিযোগ চবির ৯৫ কোটি টাকার টেন্ডারবাজির জের ধরে দিয়াজকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ নিয়ে গত ৩ দিন ধরে সড়ক অবরোধ শাটল ট্রেন বন্ধ এবং সভা সমাবেশ বিক্ষোভ চালিয়ে আসিছে ছাত্রলীগের অংশটি।

এদিকে নিহত দিয়াজের মা ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা পেশাজীবি লগের সহ সম্পাদক জোবায়দা আমিন চৌধুরী ফরেনসিক বিভাগের এ রিপোর্ট প্রত্যাখান করে বলেন, এ রিপোর্ট আমরা মানি না। এটি আমরা প্রত্যাখান করলাম।

এ বিষয়ে আজ বুধবার বিকাল ৫টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করা হবে বলে তিনি জানান।

Top