৯১ জেলেকে বিজিপির কাছে হস্তান্তর

bgb-bgp_1.jpg

সাইফুল ইসলাম, কক্সবাজার:
বাংলাদেশের জলসীমা অবৈধ ভাবে অতিক্রম করে মাছ ধরার কালে আটক মিয়ানমারের ৯১ জেলেকে এক বছর কারাভোগের পর সেদেশের সীমান্তরক্ষী বর্ডার গার্ড পুলিশকে হস্তান্তর করা হয়েছে। গত এক বছর ধরে তারা বিদেশী আইনে গ্রেফতার ও সাজা খেয়ে কারান্তরিণ ছিলেন। বুধবার বেলা ১২টার দিকে উখিয়ার ঘুমধুম সীমান্তে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঢেঁকিবনিয়া বিজিপি ক্যাম্পে বিজিবি-বিজিপি ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে তাদেরকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বৈঠকে দু’দেশের সীমান্তরক্ষি বাহিনীর মধ্যে মিয়ানমারে চলমান সহিংসতা ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ বন্ধসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূণর্ বিষয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানা যায়।

পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে কক্সবাজার বিজিবি’র সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আনিসুর রহমান, ৩৪ বিজিবি’র অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইমরুল কায়েস ও উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল খায়েরসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

কক্সবাজার বিজিবি’র ৩৪ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার জানান, অবৈধভাবে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের সময় আটক হওয়া ৯১জন মিয়ানমার নাগরিককে বিজিপি’র কাছে হস্তান্তর করা হয়। তারা এতোদিন কক্সবাজার জেলা কারাগারে আটক ছিল। সম্প্রতি মিয়ানমার সরকার এসব জেলেদের সাধারণ ক্ষমা করে সাজা মওকুপের আবেদন করলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় তা বিবেচনায় নেয়। সে হিসেবে তাদের ক্ষমা করে আইনী প্রক্রিয়া শেষে তাদের স্বদেশে ফেরত পাঠানো হলো।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৮ ডিসেম্বর বাংলাদেশের জলসীমায় অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে মাছ শিকার করার সময় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর হাতে আটক হয় মিয়ানমারের ৯২ জেলে। এরমধ্যে কারাগারে থাকা অবস্থায় একজন মিয়ানমার নাগরিকের মৃত্যু হয়। বাকী ৯১ জনকে বিজিপি’র কাছে হস্তান্তর করা হয়।

Top