পেকুয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে টাকা লুট

PicsArt_01-11-07.20.28_1.jpg

সংবাদদাতা:

পেকুয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করেছে একদল দূবৃর্ত্তরা। জমি বন্ধক নিতে স্বামীর ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে টাকা নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন স্ত্রী। এসময় পথিমধ্যে উৎপেতে থাকা দূবৃর্ত্তরা তাকে টানাহেঁছড়া করে নিয়ে যায় অজ্ঞাত স্থানে। সেখানে রশি দিয়ে বেঁধে তাকে বেদড়ক মারধর করে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়। এসময় স্থানীয়রা গৃহবধুকে উদ্ধার করতে ওই স্থানে যায়। এসময় দূবৃর্ত্তরা তাদেরকেও পিঠিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে গৃহবধুর স্বামী স্ত্রীকে উদ্ধার করতে যায়। এসময় তাকেও কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। ঘটনাটি ঘটেছে, গতকাল ১১ জানুয়ারি বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে উপজেলার টৈটং ইউনিয়নের হিরাবুনিয়া এলাকায়। আহতদের স্থানীয়রা উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্যা কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

আহতরা হলেন, ওই এলাকার রশিদ আহমদের ছেলে মানিকুর রহমান মানিক(২৮), তার স্ত্রী তসলিমা নাসরিন শিফা(২২), মা রেজিয়া বেগম (৫০), আকতার কামালের স্ত্রী রাশেদা বেগম(৩৬) ও হাছিনা বেগম (২০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় এলাকাবাসি জানিয়েছেন, জমি বন্ধক নিতে মানিকের স্ত্রী তসলিমা নাসরিন শিফা স্বামীর ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে নগদ টাকা নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে হিরাবুনিয়া এলাকায় পৌছলে পুর্ব থেকে উৎপেতে থাকা একই এলাকার আবুল কালামের ছেলে আবু তাহেরসহ ৫/৬জন দূবৃর্ত্তরা শিফাকে তুলে নিয়ে যায়। এসময় আবু তাহেরের বাড়িতে আটকিয়ে মারধর করে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়।

এব্যাপারে তসলিমা নাসরিন শিফা জানায়, তারা আমাকে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রাস্তা টানা হেছড়া করে বাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। এসময় মারধর করে জোর পুর্বক নগদ ৫০হাজার টাকা, একটি ১ভরি ওজনের স্বর্নের চেইন ও একটি আংটি নিয়ে ফেলে। টাকাগুলো জমি বন্ধক নিতে হাজ¦ীবাজার স্বামীর কাছ থেকে আনছিলাম।

Top