খোদ আর্জেন্টিনায় মেসির মূর্তি ভাঙচুর!‌

b279c45ax53dax4.jpg

অনলাইন ডেস্ক : আগে থেকেই কী নিশ্চিত ছিলেন যে এবার ফিফা বছরসেরার ট্রফি তাঁর সবচেয়ে ক্ষুরধার পেশাদারি শত্রু ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর হাতেই উঠতে চলেছে?‌ আর সেজন্যই কি জুরিখগামী বিমানে উঠতে একেবারেই আগ্রহী হননি? লিওনেল মেসিকে নিয়ে অধুনা বিশ্ব ফুটবলে আলোচনার ঝড়। এরইমধঝ্যে মেসির নিজের দেশ থেকে এমন একটি খবর এল যা ‘‌এল এম টেন’‌-‌কে আরও একটু ব্যথাতুর করে তুলতেই পারে!‌ রোনাল্ডোর চতুর্থবার ফিফা বর্ষসেরা হওয়ার দিনেই দুনিয়াজোড়া মেসি ভক্তদের জন্য দুঃসংবাদ বয়ে আনল আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস এয়ার্সের রিও ডে লা প্লাটা। শহরের নদী তীরবর্তী সাজানো অঞ্চলে মেসির পূর্ণাবয়ব মূর্তি কে বা কারা সোমবার ভেঙে দিয়ে গিয়েছে! আর ঘটনাটা জানাজানি হতেই গোটা দেশ জুড়ে তুমুল চাঞ্চল্য। মাত্র ২০১৬ সালেই ‘‌এল এম টেন’‌-‌এর এই আদলে গড়ে তোলা এই স্থাপত্যটির আবরণ উন্মোচন করেছিলেন বু্য়েনস এয়ার্সের মহানাগরিক হোরাসিও রডরিগেজ লারেটা। কোপা আমেরিকার পর যখন মেসি আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে সরে যাওযার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন সেসময়েই এটি গড়ে তোলা হয়। সোমবার দেখা গিয়েছে মূর্তিটিকে আর্ধেক ভাঙা অবস্থায় দেখতে পাওয়ার পর শোরগোল পড়ে যায়। আর্জেন্টিনার রাজধানী শহরের স্থানীয় প্রশাসনের তরফ থেকে প্রকাশিত এক বার্তায় জানানো হয়েছে, ‘‌মেসির মূর্তিটিকে কে বা কারা এভাবে মাথার দিক থেকে ভেঙে ফেলল তা তদন্তসাপেক্ষ। আমরা এটিকে আপাতত যত দ্রুত সম্ভব সারিয়ে তোলার চেষ্টা করছি।’‌ শুধু মেসির নয়, নদীর ধার বরাবর রাস্তায় আর্জেন্টিনার অন্য খেলার মহাতারকাদের মূর্তিও বসানো রয়েছে। টেনিসের গ্যাব্রিয়েলা সাবাতিনি, গিলেরমো ভিলাস বা ফরমুলা ওয়ানের জুয়ান ম্যানুয়েল ফ্যাঞ্জিওর মূর্তিও স্থাপন করা হয়েছে জায়গাটিতে। ‌ ‌ ‌‌- আজকাল

Top