আফগান পার্লামেন্টের কাছে তালেবান হামলায় নিহত ৩৩

Afgan-e1484056470831.jpg

ডেস্ক নিউজ:

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে পার্লামেন্টের কাছে জোড়া আত্মঘাতী তালেবান হামলায় ৩০ জনের বেশি মানুষ নিহত এবং ৭০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছে।

বিকালের ব্যস্ত সময়ে এ হামলা হয়। স্টাফরা এ সময় পার্লামেন্ট প্রাঙ্গণ ত্যাগ করছিল।

হামলার পরপরই এর দায় স্বীকার করে তালেবান গোষ্ঠী। আফগান গোয়েন্দা সংস্থা লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়েছে বলে জানায় তারা।

ঊর্ধ্বতন এক সরকারি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সালিম রাসৌলি বলেন, পার্লামেন্ট বভনের কাছে দারুল আমান সড়কে ৩৩ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ৭০ জনে বেশি মানুষ। নিহতদের বেশির ভাগই পার্লামেন্টের স্টাফ।

তালেবান জঙ্গিরা জানিয়েছে, তাদের হামলার লক্ষ্য ছিল আফগানিস্তানের প্রধান গোয়েন্দা সংস্থা ‘দ্য ন্যাশনাল ডাইরেক্টরেট অব সিকিউরিটি’ (এনডিএস) স্টাফদের বহনকারী মিনিবাস।

দারুল আমান এলাকায় একটি মিনিবাসে হামলা চালায় এক আত্মঘাতী হামলাকারী। আর এর পরপরই ঘটনাস্থলে উপস্থিত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ওপর গাড়িবোমা হামলা চালায় আরেকজন।

আফগান কয়েকজন কর্মকর্তা বলেছেন, নিহতদের মধ্যে গোয়েন্দা সংস্থা এনডিএস এর জেলাপ্রধান রয়েছেন। আর আহতদের মধ্যে আছেন পশ্চিমাঞ্চলীয় হেরাত প্রদেশের একজন এমপি রহিমা জামি।

কাবুলে কয়েকমাসের মধ্যে এটিই সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী হামলা। আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি এ জঘন্য হামলার পেছনে জড়িতদের আটক করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

হামলায় আহত পার্লামেন্টের এক নিরাপত্তারক্ষী বলেন, “প্রথম বিস্ফোরণটি পার্লামেন্টের বাইরে ঘটেছে… এতে হতাহত হয়েছে বেশ কয়েকজন কর্মী। পায়ে হেঁটে আসা এক আত্মঘাতী হামলাকারী এ বিস্ফোরণ ঘটায়।”

“রাস্তার আরেকপাশে পার্ক করা গাড়িতে বোমা রাখা ছিল। এটি বিস্ফোরিত হওয়ার সময় আমাকে উড়িয়ে নিয়ে যায়।”

কাবুলের ডিস্ট্রিক ৭ এর পুলিশ প্রধান বিবিসি কে বলেন, প্রথম বোমা হামলার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে দ্বিতীয় বোমার বিস্ফোরণ ঘটে।

Top